ঝাড়গ্রামের সিপিএম প্রার্থী দেবলীনা হেমব্রম এর সমর্থনে সূর্য্যের রোড শো


বুধবার,০১/০৫/২০১৯
279

বাংলা এক্সপ্রেস---

ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রামের সিপিএম প্রার্থী দেবলীনা হেমব্রম এর সমর্থনে সূর্য্যের রোড শো তে উপচ্ছে পড়া ভিড়। ধূ ধূ রোদুরেই ছাতা মাথায় নিয়েই সভা শুনলেন সিপিএম এর সমর্থকরা। বুধবার সকাল ১১ টার সময় ঝাড়গ্রাম শহরের পুরাতন ঝাড়গ্রাম এলাকা থেকে দেবলীনা হেমব্রম কে পাশে নিয়ে পাঁচ নম্বর রাজ্য সড়কের উপর দিয়ে রোড শো করেন সূর্যকান্ত মিশ্র। প্রচারের এই রোড শো তে লাল ঝান্ডা হাতে মানুষের ভিড় উপচ্ছে পড়ে। পুরাতন ঝাড়গ্রাম থেকে শুরু করে পাঁচ মাথার মোড় হয়ে সুভাষ পার্কে রোড শো শেষ হয় সূর্যকান্ত মিশ্রের।

তারপর দেবলীনা হেমব্রম এর সমর্থনে সুভাষ পার্কে জনসভা করেন সূর্যকান্ত মিশ্র। এদিনের জনসভার মঞ্চ তৈরি করা থাকলেও কিন্তু কর্মী বা সমর্থকদের জন্য রোদের হাত থেকে বাঁচতে কাপড় বা ট্রিপল দিয়ে ছাউনি করা ছিলো না। ধূ ধূ করা এই রোদেই ছাতা হাতে ধরেই সভা শুনলেন সাধারণ মানুষ জন। এদিনের এই সভায় সূর্যকান্ত ও দেবলীনা ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ডহর সেন, পুলিন বিহারী বাস্কে ও মধুজা সেন।

রাজনৈতিক দলের নেতা মন্ত্রীদেরকে এক দল থেকে অন্য দলে ঘোড়ার মতো কেনাবেচা করছে তৃণমূল ও বিজেপি। এমনই অভিযোগ করে সূর্যকান্ত মিশ্র বলেন , প্রধানমন্ত্রী ঘোড়ার ব্যবসা আরম্ভ করেছেন। মুখ্যমন্ত্রীর প্রতি আমার কোন সহানুভূতি নেই , কারন পশ্চিমবাংলার মাটিতে ইনি প্রথম আরম্ভ করেছেন ঘোড়া কেনাবেচা। আগে উনি কিনেছিলেন, এখন বিজেপি কিনছে। টাকা পয়সা দিয়ে দল ভাঙ্গানো।

আমরা ৩৪ বছর ক্ষমতায় ছিলাম, কেও বলতে পারবেন আমরা টাকা পয়সা দিয়ে কারো দল ভঙ্গিয়েছি। টাকা পয়সার লোভ দেখিয়ে যে তৃণমূল ছিলো সে বিজেপি হয়ে যাচ্ছে। আর যে বিজেপি ছিলো সে তৃণমূল হয়ে যাচ্ছে । যাদবপুরের বিজেপি প্রার্থীকে তো দেখলাম বীরভূম গিয়ে তার কাকার মাথায় পায়ে হাত দিচ্ছে। আবার কাকা বলছে অনুপম কে আবার তৃণমূলে আনবে। এরা কখন বিজেপি আর কখন তৃণমূল তা বোঝা মুশকিল। বেকার সমস্যা নিয়ে তিনি আরও বলেন, বাংলায় কোন কাজ নেই, শিল্প নেই। আমাদের মুখ্যমন্ত্রীর নাম হয়েছে শিল্পতাড়ুয়া। তাকে না তাড়ালে বেকার সমস্যা মিটবে না।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট