বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষে ফের উত্তপ্ত নারায়ণগড়,মারামারিতে আহত দুই দলের প্রায় ২০ জন কর্মী সমর্থক


শনিবার,১১/০৫/২০১৯
343

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: ষষ্ঠ দফার নির্বাচনে রবিবার।তার আগেই ফের রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত নারায়ণগড়।বেলদা থানার অন্তর্গত রাজনৈতিক সংঘর্ষের পর শুক্রবার বিকালে নারায়ণগড় থানার অন্তর্গত গনুয়া গ্রামে বিজেপি তৃণমূল সংঘর্ষে আহত দুই দলের কর্মী সমর্থক। জানা গিয়েছে শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ নারায়ণগড় থানার অন্তর্গত গনুয়া গ্রামে প্রচার চালাচ্ছিলেন দুই দলের কর্মী-সমর্থকরা। সেই প্রচার মিছিল থেকে দু’দলের বচসা শুরু হয়।

যদিও বিজেপির অভিযোগ-“কুষবসান 15 নং অঞ্চলের গনুয়াতে জোরপূর্বক ভাবে বিজেপির ভোটারদের ভোটার পরিচয় পত্র ছাড়িয়ে নেয় তৃণমূল। তার ফলে প্রতিবাদ করতে গেলে তীর ছোঁড়ে এমনকি ধারালো অস্ত্র নিয়ে আক্রমণ চালায় বিজেপির উপর।তীর এবং ধারালো অস্ত্রের কোপে গুরুতর আহত হয় বিজেপি দলের প্রায় 15 জন কর্মী-সমর্থক। কৃষ্ণেন্দু বাগ নামে এক বিজেপি কর্মী তিরবিদ্ধ হয়।”

তাদেরকে উদ্ধার করে বেলদা গ্রামীণ হাসপাতালে আনা হয় একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। অপরদিকে তৃণমূলের অভিযোগ-“দুইদলই প্রচার করছিল গনুয়াতে। আচমকাই বিজেপির কয়েকজন কর্মী সমর্থক লাঠি রড নিয়ে আক্রমণ চালায় তাদের উপর। ৭ জন তৃণমূল কর্মী আহত হয়েছে,তাদের একজনের অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় মেদিনীপুর মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয়।।”

নারায়ণগড় থানায় দুই দলের পক্ষ থেকে মৌখিক অভিযোগ জানানো হয়েছে।চিকিৎসার পর লিখিত অভিযোগ জানানো হবে।তবে পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার প্রশ্ন তুলছে বিজেপি দল। একদিনের ব্যবধানে নারায়ণগড়ের দুই জায়গায় বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষে রাজনৈতিক সমালোচনা সৃষ্টি হয়েছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট