ট্র্যাফিকের গ্রিন করিডর, ১৬ মিনিটে বিমানবন্দর থেকে বাইপাসের হাসপাতালে পৌঁছে গেল হৃৎপিণ্ড


বৃহস্পতিবার,৩০/০৫/২০১৯
450

কলকাতা: মুম্বইয়ের বাসিন্দা ১৭ বছরের এক কিশোর গত ২৬ মে পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে ভর্তি ছিল মুম্বইয়ের গ্লোবাল হসপিটালে। গতকাল (২৮ মে ) হাসপাতালের তরফে তাঁকে ‘ব্রেন ডেড’ ঘোষণা করা হয়। পাশাপাশি, পরিবারের সম্মতিক্রমে প্রতিস্থাপনের জন্য বের করে নেওয়া হয় তাঁর হৃৎপিণ্ডও। কলকাতার ফোর্টিস হাসপাতালে গুরুতর অসুখ নিয়ে ভর্তি দমদমের বাসিন্দা ৪৩ বছর বয়সী অনুষা অধিকারীর শরীরে প্রতিস্থাপনের জন্য।

গতকাল রাত ১০.১৫ নাগাদ হৃৎপিণ্ডটি মুম্বই থেকে বিমানে এসে পৌঁছয় কলকাতায়। এবং বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের তৎপরতায় ১০.২২-এ রওনা হয়ে যায় ফোর্টিস হসপিটালের উদ্দেশ্যে।

যথাসাধ্য দ্রুততায় হাসপাতালে হৃৎপিণ্ডটি পৌঁছে দেওয়ার জন্য বিমানবন্দর থেকে হাসপাতাল পর্যন্ত গ্রিন করিডর তৈরি হয় বিধাননগর পুলিশ এবং কলকাতা পুলিশের সমন্বয়ে। রাস্তায় উপস্থিত ছিলেন সংশ্লিষ্ট সব থানা এবং ট্র্যাফিক গার্ডের ওসি-রা। হৃৎপিণ্ডটি ফোর্টিস হাসপাতালে পৌঁছে যায় ১০.৩৮-এর কয়েক মুহূর্ত পরে, মাত্র ১৬ মিনিট ২৩ সেকেন্ডে। শুরু হয় হৃৎপিণ্ড প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া।

ওই কিশোরের পরিবারকে সমবেদনা শুধু নয়, শ্রদ্ধা জানাই। দ্রুত আরোগ্য কামনা করি গ্রহীতা অনুষা অধিকারীর। শ্রদ্ধা সেই চিকিৎসকদের, যাঁরা সম্পন্ন করলেন প্রতিস্থাপন প্রক্রিয়া।

কলকাতা পুলিশের এলাকায় চিংড়িহাটা থেকে ফোর্টিস পর্যন্ত ‘গ্রিন করিডর’-এর যাত্রাপথের একটি ভিডিও রইল।

তথ্য : কলকাতা পুলিশ

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট