অচলাবস্থা অব্যাহত, সরকাকারি হাসপাতালে বন্ধ পরিষেবা


বুধবার,১২/০৬/২০১৯
145

কলকাতা: কলকাতার নীলরতন সরকার হাসপাতাল কর্মবিরতি চলছে জুনিয়র চিকিৎসকদের। বন্ধু ইমারজেন্সি। চরম ভাবে নাজেহাল হয়ে পড়েছেন রোগীর পরিবার এবং তার আত্মীয় স্বজনেরা। শুধু এন আর এস হাসপাতাল লি নয়, কলকাতার অন্যান্য হাসপাতাল এবং রাজ্যের অধিকাংশ হাসপাতালেই জুনিয়র চিকিৎসকরা অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করেছেন এবং কর্মবিরতি চালিয়ে যাচ্ছেন। এর জেরে রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরিষেবা শিকেয় উঠেছে। সাধারণ গরিব মানুষ তাদের রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা পাচ্ছেন না। এক হাসপাতাল থেকে আরেক হাসপাতালে ছুটে বেড়ালেও মিলছে না চিকিৎসা করতে হয়।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে রাজ্য প্রশাসন তৎপর হলেও এখনো পর্যন্ত মেলেনি কোন সমাধান সূত্র। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে কলকাতার পুলিশ কমিশনার এবং রাজ্যের স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য মঙ্গলবার নীলরতন সরকার হাসপাতালে ছুটে গিয়েছিলেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এবং আন্দোলনকারী জুনিয়র ডাক্তারদের সঙ্গে আলোচনা করলেও সমাধান সূত্র বেরিয়ে আসেনি। আন্দোলনকারী জুনিয়ার ডাক্তাররা জানিয়েছেন তাদের দাবি নামে টা পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। রাজ্য স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য জানান তিনি আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলেছেন তাদের দাবি-দাওয়া শুনেছেন।

আন্দোলনকারীদের অনুরোধ করা হয়েছে অবস্থান এবং কর্মবিরতি তুলে নেয়ার জন্য। তারা কর্মবিরতি তুলবে কিনা তা তাদের সিদ্ধান্ত।
একদিকে রাজ্য সরকার অন্যদিকে আন্দোলনকারী উভয় পক্ষের মধ্যে আলোচনা চললেও পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল হয়ে উঠছে। আর তার জেরে নাজেহাল সাধারণ গরিব মানুষ। তারা চাইছেন দ্রুত এই জট কাটুক।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট