‘সাপে কাটা ও বিষের তথ্য’ জানার অ্যাপ


বুধবার,০৭/০৮/২০১৯
393

ঝাড়গ্রাম:- দেশে প্রথম ‘সাপে কাটা ও বিষের তথ্য’ জানার অ্যাপ চালু করল রাজ্য সরকার। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের স্বাস্থ্য দপ্তরের উদ্যোগে এই অ্যাপটি চালু হয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, গত ৩১ জুলাই অ্যাপটি চালু করা হয়েছে। এই অ্যাপে সাপের কামড়ের পর প্রাথমিকভাবে কী কী করা উচিত, তা তথ্য আকারে জানানো হয়েছে। সাপের কামড়ের প্রাথমিক চিকিৎসা পদ্ধতি ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থার কথাও আ্যপটিতে জানানো হয়েছে। সরকারি উদ্যোগে চালু হওয়া তথ্যসম্বলিত এই আ্যপ থেকে সাধারণ মানুষ অনেক কিছু জানতে পারবেন বলে মনে করছে স্বাস্থ্যদপ্তর।

জানা গিয়েছে, ছ’মাস আগে এই অ্যাপটি তৈরির উদ্যোগ নেয় রাজ্য সরকার। এজন্য সর্প বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকদের সাহায্য নেওয়া হয়। তারপরই চালু করা হয় অ্যাপ। গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে ‘sanke bite and poision information’ লিখলেই পশ্চিমবঙ্গের মানচিত্র সহ সবুজ রঙের অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে। অ্যাপটি খুললেই ইংরেজি ও বাংলা দু’টি অপশন আসবে। সেখানে ভাষা নির্বাচন করলেই সেই ভাষায় যাবতীয় তথ্য সামনে চলে আসবে। সাপের কামড়ের ক্ষেত্রে ও বিষের ক্ষেত্রে কী করা প্রয়োজন এবং কোন কোন সাপ বিষধর ও কোন কোন সাপ বিষহীন, তা ছবি ও তথ্য সহকারে দেওয়া হয়েছে। অ্যাপটির বাঁদিকের কোণায় রয়েছে টোল ফ্রি নম্বর। সেখানে টাচ করলেই ১৮০০৩৪৫০০৩৩ নম্বরে ফোন যাবে।

চিকিৎসকদের দাবি, বর্তমান যুগে প্রায় সবার কাছেই অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল রয়েছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে বিশেষত গ্রামাঞ্চলের মানুষ খুবই উপকৃত হবেন। আগের তুলনায় সাপ নিয়ে মানুষের সচেতনতা বেড়েছে। এখন সাপে কামড়ালে মানুষ হাসপাতালে বেশি যাচ্ছেন। কিন্তু বর্তমানে আ্যন্টি ভেনামে সেরকম কাজ হচ্ছে না। যার ফলে সাপের কামড়ে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। এছাড়া কিছু মানুষ এখনও সাপে কামড়ালে হাসপাতালে না গিয়ে গুনিন বা ওঝার কাছে যান। যার ফলে প্রাণ হারাতে হয়। সে-সংক্রান্ত রিপোর্ট সবসময় সরকারের কাছে জমাও পড়ে না। সর্প বিশেষজ্ঞরা দাবি তুলেছেন, সরকারিভাবে এভিএস কেন্দ্র তৈরি হোক।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট