বৌমাকে তিন মাস ধরে বলপূর্বক ধর্ষনের অভিযোগ


বৃহস্পতিবার,১২/০৯/২০১৯
2180

হাওড়া: বৌমাকে তিন মাস ধরে বলপূর্বক ধর্ষনের অভিযোগ। গ্রেফতার শ্বশুর গনেশ ছড়ি(৪৫)। উদনারায়নপুরের খিলা কল্যাণচক এলাকার ঘটনা। জানা গেছে এলাকার বাপ মা মরা দিদি জামাইবাবুর সাথে থাকা তরুনীর সাথে ছেলের বিয়ে দিয়ে বৌমা করে বাড়িতে এনেছিলেন গনেশ। বলেছিলেন বৌমা নয় মেয়ে হয়ে থাকবে। গৃহবধুর অভিযোগ শ্বশুর গনেশ ছড়ি ও স্বামী হাওড়ার বেলুড়ের একটি কারখানায় কাজ করতেন। বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই শ্বশুরের মধ্যে পরিবর্তন লক্ষ্য করেন। হটাৎ করে কাজে ছুটি নিয়ে ছেলেকে ছাড়াই বাড়ি ফিরে এসে বৌমাকে নিয়ে ঘুরতে যাওয়ার আবদার করতেন শ্বশুর। যেতে না চাইলেও জোর করে বাইকে চাপিয়ে ঘুরতে নিয়ে যেতেন। গৃহবধুর অভিযোগ বিয়ের এক মাস পর তাকে বলপূর্বক ধর্ষন করে শ্বশুর গনেশ ছড়ি। কাউকে জানালে প্রানে মেরে দেওয়ার হুমকি দেয়। তার পর থেকেই লাগাদার তিন মাস ধরে তাকে ধর্ষণ করেছে গনেশ।

শ্বশুরের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে দিন দশেক আগে দিদি জামাইবাবুকে সমস্ত ঘটনা জানায় নির্যাতিতা গৃহবধু। পাশাপাশি তার অভিযোগ তার স্বামী সুমন ছড়িকে শ্বশুরের কুকথা জানালেও‌ বাবার ভয়ে সে কোনো প্রতিবাদ করেনি। গৃহবধুর পরিজনেরা গনেশকে চেপে‌ ধরলে সে সমস্ত ঘটনা স্বীকার করে এবং প্রতিশ্রুতি দেয় যে ছেলে ও বৌমাকে সংসারের দায়িত্ব ছেড়ে গ্রাম ছেড়ে সে অন্য কোথাও চলে যাবে। দশদিন পরেও গনেশ প্রতিশ্রুতি পালন না করায় বুধবার উদয়নারায়নপুর থানায় গনেশের বিরুদ্ধে ধর্ষনের অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতা গৃহবধু। বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলিশ গনেশকে হাওড়ার বেলুড়ের তার কর্মস্থল থেকে গ্রেফতার করে। শুক্রবার তাকে উলুবেড়িয়া মহকুমা আদালতে তোলা হবে।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট