মহাত্মা গান্ধীর জন্মদিনে পথনাটিকার মাধ্যমে পরিবেশ সচেতনতার বার্তা


বুধবার,০২/১০/২০১৯
360

জাতির জনক মহাত্মা ১৫০ তম জন্মবার্ষিকীতে পথনাটিকার মাধ্যমে সচেতনতা বার্তা দিল ইকনমিক রুরাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি ও সেন্টার ফর এনভায়রোমেন্ট এডুকেশন। বুধবার এই দুটি সংস্থার যৌথ উদ্যোগে কালীঘাটে আদি গঙ্গার তীরে পথনাটিকা পরিবেশন করেন সংস্থার সদস্যরা। সেইসঙ্গে স্বচ্ছতা অভিযানেও অংশগ্রহণ করেন তারা।প্লাস্টিক দূষনের ভয়াবহতা তুলে ধরা হয় ওই পথনাটিকার মাধ্যমে। ইকনমিক রুরাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির তরফ থেকে বদলাও ও কান্ডারী যুব দলের সদস্যরা কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে।

উল্লেখ্য, গত ২২ জুন থেকে প্লাস্টিক দূষণের বিরুদ্ধে ধারাবাহিক ভাবে কাজ করে চলেছে এই সংস্থার সদস্য সদস্যারা। মূলত একবার ব্যবহার যোগ্য প্লাস্টিকের ব্যবহার কমানো ও বাতিল করাই ছিল কর্মসূচির মূল লক্ষ। এছাড়াও প্লাস্টিক দ্রব্যসামগ্রীকে যেখানে সেখানে ফেলে না দিয়ে, তা পুনরায় ব্যবহার উপযোগী করে গড়ে তোলার কাজে মানুষকে সজাগ করার কাজে মানুষের কাছে সঠিক বার্তা দেওয়াই হল এই কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য।

এদিন প্লাস্টিক দূষণের ওপরে পোষ্টার লিখন এবং একবার ব‍্যবহারযোগ‍্য প্লাস্টিক বন্ধ করে দিলে সাধারণ মানুষ ও ব‍্যবসায়িদের উপর কী ধরনের প্রভাব পরবে তার ওপর সমীক্ষা করা হয়। এদিনের কর্মসূচিতে ইকনমিক রুরাল ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির বোড়াল প্রকল্পের কান্ডারি ও বদলাও দলের বাছাই করা সদস্যরা ছাড়াও শ্রী শিক্ষানিকেতন স্কুলের পড়ুয়ারাও অংশ নেয়। সি.ই.ই-র উদ্যোগে এই কর্মসূচিটি একদিনে কালীঘাট ছাড়াও কলকাতার বাগবাজার ঘাট এবং ব‍্যারাকপুরের গান্ধী ঘাটে অনুষ্ঠিত হয়।

প্লাস্টিকের বর্জ্য আজ আমাদের পরিবেশকে এক ভয়াবহ জায়গায় এনে দাঁড় করিয়েছে,সকলে একজোট হয়ে এর বিরুদ্ধে সচেতনতার মাধ্যমে মানুষকে বোঝাতে হবে।সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতার তাগিদে তাই আমরা ধারাবাহিক ভাবে সাধারনের মধ্যে একবার ব্যবহার যোগ্য প্লাস্টিকের বিপদ সম্পর্কে প্রচার করে চলেছি। তাদের কথায় আগামী দিন তারা ফেলে দেওয়া প্লাস্টিকের জিনিস কে পুনরায় ব্যবহার যোগ্য দ্রব্যসামগ্রী তৈরী করে একটি প্রদর্শনী আয়োজিত করে তা সাধারণের সামনে তুলে ধরে মানুষকে সজাগ ও সচেতন করার দায়িত্ব গ্রহণ করবে বলে জানায়।

আজকে এই গঙ্গার ঘাট পরিস্কার করা ও সচেতনতা কর্মসূচিতে সাধারণ মানুষ অংশগ্রহণ করেন এবং এই ধরনের কর্মসূচিকে তারা সাধুবাদ জানান।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট