প্রেমের ছ্যাঁকা – এন.কে.মণ্ডল (তৃতীয় পর্ব)


সোমবার,০৭/১০/২০১৯
976

প্রেমের ছ্যাঁকা – এন.কে.মণ্ডল
(তৃতীয় পর্ব)

কয়েক মাস পর———-

একদা একদিন একটি রাস্তায় সিগারেট খাচ্ছে আর ঘাড় বাঁকা করে হাটতেছে মাতালের মত টলছে। একপায়ে জুতা আছে আরেক পায়ে জুতা নেই। আর দেখে মনে হচ্ছে বনমানুষ। স্নান করে নি কয়েক মাস ও দাঁড়ি কাটে নি।
যে রোহান মাথামোটা ছেলেমেয়েদের পড়িয়ে ভালো রেজাল্ট করিয়েছে সেসব ছেলেমেয়ে আর স্যার বলে ডাকে না, পড়েও না ভয় পায়। সেই রোহান আজ প্রেমের ছ্যাঁকা খেয়ে এইরকম পাগল হয়ে গেছে। অবস্থা একদম ঢিলে।

যাইহোক রোহান হেটেই চলেছে রাস্তার মাঝখানটা দিয়ে। ঠিক ওই সময় তাঁর প্রিয় ছাত্র সুনানের বড় বোন সাবিলা শিমু ড্রাইভিং করে বাড়ি ফিরছে। হটাৎ নজর পড়ল গাড়ির আয়নার দিকে, তাকাতেই রোহান কে পাগল অবস্থায় দেখতে পেলো ঘাড় বাঁকা করে হেটে চলেছে বুনোমানুষ রুপে।
সাবিলা শিমু গাড়ি থেকে নেমে রোহান কে নিয়ে আসলো সাবিলার গাড়িতে। এবং নিয়ে গেলো একটি ভালো জায়গায়। এবং রোহানের কাছে জানতে চাইলো এরকম হওয়ার কারণ। রোহান কোনো উত্তর দেয় না। বা উত্তর দিতে রাজি নয়।
অনেক চাপাচাপি করার পর সাবিলাকে সবকিছু খুলে বলল।

সাবিলা মাথায় হাত রেখে ও স্যাড বলে দু:খ প্রকাশ করল।এবং নানান ভাষায় রোহান কে বকাবকি করতে লাগল।
আপনি কি পাগল, একজন মেধাবী ছাত্র হওয়ার পরেও এরকম অবস্থা। আপনি ফেল করা ছাত্র ছাত্রীদের পড়িয়ে ছেলেমেয়েদের রেজাল্ট রেকর্ড করিয়েছেন।
আপনি পাগল না হলে একজন স্বার্থপর মেয়ের জন্য নিজের জীবনকে শেষ করে ফেলেছো।

ঠিক আছে যা হয়েছে হয়েছে তোমায় সুস্থ করে তোলার ব্যাবস্থা করব। শুধুমাত্র সুনানের স্যার বলে, এটা আমার কর্তব্য মনে করছি।
এইবলে রোহান কে সাবিলাদের বাড়িতে নিয়ে যায় এবং চুলদাঁড়ি কেটে দেয় সাবিলা, স্নান করিয়ে ভালো পোষাক পরিয়ে দেয়। এখন আবার আগের মতো হিরো।কিন্তু ঘাড় বাঁকা এবং টেনশন মুক্ত করতে হবে সাবিলাকে।
বাবার পরামর্শ নিয়ে ভালো সার্জেন দেখায় এবং টেনশন মুক্ত করার জন্য নানান গল্প,আবদার মেটায় সাবিলা। কয়েক মাস পরে আবার আগের মত রোহান সাভাবিক।

কয়েকমাস পরে——–

কয়েক মাস পরে সাবিলা তাঁদের ছাঁদের ওপর দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কফি খাচ্ছে, এমন সময় রোহান আসলো সাবিলার কাছে পিছনে একটি গোলাপ হাতে নিয়ে। হাটু গেড়ে বসে প্রপোজ করছে।

সাবিলা হটাৎ করে যেন আকাশ থেকে পড়ল।

সাবিলা:– এ কি বলছো, আমি তোমায় ভালোবাসি না আর তাছাড়া যা কিছু করেছি তা মাত্র তুমি ভালো মানুষ এবং সুনানের মাস্টার বলে। আমার চোখের সামনে একজন ভালো মানুষ তিলে তিলে শেষ হয়ে যাক তা আমি চাই নি।

আর তাছাড়া সামনের মাসে আমার বিয়ে। আমি এসব কখনোই পারব না, অসম্ভব।
রোহান আবার আগের মত শরীর খারাপ হতে লেগেছে।
সাবিলা রোহান কে ধরে বসিয়ে ভালোভাবে বোঝানোর চেষ্টা করছে।

যে দ্যাখ আমি তোমায় কোনোদিন ভালোবাসি নি, আর তাছাড়া আমার সামনে মাসে বিয়ে।অনেক বুঝিয়ে রোহান কে নিয়ন্ত্রণ করল।

এন.কে.মণ্ডল

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট