নক্ষত্রপতন টলি ইন্ডাস্ট্রিতে। প্রয়াত হলেন বাংলা সিনেমার বিখ্যাত অভিনেতা তাপস পাল।


মঙ্গলবার,১৮/০২/২০২০
669

বাংলা এক্সপ্রেস ডিজিটাল ডেস্ক ; ---

অভিনেতার অকাল প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমেছে টলিউডে। তাঁর মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন চিরঞ্জিৎ, ইন্দ্রাণী দত্ত, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়, দেবশ্রী রায়ের মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।এ দিন তাঁর স্মৃতিচারণা করলেন অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। অভিনেতা তাপস পালের মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছেন অভিনেত্রী।

 

‘দাদার কীর্তি’-র সেই সরল সাদাসিধে ছেলের চরিত্রে তাপসের অভিনয় আজও দর্শকদের স্মৃতিতে অম্লান।এছাড়া ২০০৯ সালে তৃণমূলে যোগ দিয়ে নতুন ইনিংস শুরু করেন তাপস। সে বছর লোকসভা ভোটে কৃষ্ণনগরে তাঁকে প্রার্থী করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভালো ব্যবধানে জয়ী হয়ে এমপি হন তাপস।অভিনেতার অকাল প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমেছে টলিউডে।  চিরঞ্জিৎ, রঞ্জিত মল্লিক, দেব, দেবশ্রী রায়ের মতো অভিনেতা-অভিনেত্রীরা। গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।বাংলা সিনেমায় তাঁর আগমন তরুণ মজুমদার পরিচালিত ‘দাদার কীর্তি’-ছবির হাত ধরে।

 

আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি অভিনেতা তাপস পালকে। বৈদূর্য রহস্য, মায়া মমতা, সমাপ্তি, অনুরাগ, বাহাদুর, ‘সাহেব’, ‘অনুরাগের ছোঁয়া’, ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’, ‘পথভোলা’, কুরুক্ষেত্র ছায়াছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন। সুত্রের খবর মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে মুম্বই গিয়েছিলেন তাপস। সোহিনী আমেরিকা যাওয়ার কিছুক্ষণ পরই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। ভর্তি করা হয় বান্দ্রার একটি হাসপাতালে। রাখা হয়েছিল ভেন্টিলেশনে।

 

৬ ফেব্রুয়ারি ভেন্টিলেশন থেকে বের করা হয়। গতকাল রাতে ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন তাপস পাল। রাত ৩:৩৫ মিনিটে তাঁর মৃত্যু হয়। বাংলা ছায়াছবির জগতে নক্ষত্রপতন বলে মনে করছেন অনেকেই। ঘরের ছেলের সারল্য দিয়ে শুরু করে ‘লার্জার দ্যান লাইফ’ হয়ে ওঠা তাপসের অভিনয়গুণই তাঁকে বাংলার জনতার হৃদয়ে আজীবনের স্থান করে দিয়েছে।

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট