ভিনরাজ্য থেকে হেঁটে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের হাতে নতুন জামা-কাপড় তুলে বাডি পাঠানোর ব্যবস্থা করলেন ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসন


সোমবার,১৮/০৫/২০২০
668

ঝাড়গ্রাম:- জেলাশাসকের মানবিক নির্দেশ, ঝাড়গ্রাম জেলায় কোনও পরিযায়ী শ্রমিক হেঁটে বা সাইকেলে বাড়ি ফিরবেন না। লোধাশুলিতে এমনই ৫ জন সাইকেল আরোহীকে আটকানো হয়। যাঁরা ছত্তিশগড় থেকে সাইকেলে পাঁশকুড়ায় ফিরছিলেন। তাঁরা রাজমিস্ত্রি ও মার্বেল মিস্ত্রির কাজ করেন। তাঁদের খাবার দেওয়া হয়। এরপর মিনি লরিতে সাইকেল সহ তাঁদের তুলে গন্তব্যে পাঠানো হয়। ঝাড়গ্রামের মহকুমাশাসক সুবর্ণ রায় জানান, জেলাশাসক ও মহকুমাশাসক নিজেরা দাঁড়িয়ে থেকে সাইকেল আরোহীদের খাবার ও পানীয় জল দিয়ে গাড়িতে তোলার ব্যবস্থা করেন। এছাড়া ভিনরাজ্য থেকে হেঁটে আসা এ রাজ্যের বিভিন্ন জেলার বাসিন্দা আরও ২৯ জন পরিযায়ীকে এদিন লোধাশুলিতে আটকানো হয়।

তাঁদের লোধাশুলি পথসাথী-তে শুকনো খাবার, পানীয় জল ও চা দেওয়া হয়। তাদের ঘর্মাক্ত জামাকাপড় খুলিয়ে ত্রাণ দপ্তরের সহযোগিতায় মহকুমাশাসক তাঁদের হাতে নতুন জামা-কাপড় তুলে দেন। খাওয়া-দাওয়া করে, নতুন জামাকাপড় পরে তারা খুশি হয়ে রওনা দেন বাড়ির পথে। পশ্চিম মেদিনীপুর, মালদা ও পুরুলিয়া জেলায় তাঁদের পাঠানোর জন্য বাসে তোলা হয়। উপস্থিত ছিলেন, মহকুমা পুলিস আধিকারিক অনিন্দ্য ভট্টাচার্য ও ঝাড়গ্রাম থানার আইসি পলাশ চট্টোপাধ্যায়। মহকুমাশাসক জানান, জেলাশাসকের নির্দেশে এই কার্যক্রম চলবে। কেউ এই জেলা হয়ে হেঁটে ফিরবেন না। প্রতিদিন জেলাশাসক নিজে দাঁড়িয়ে থেকে এই ব্যবস্থার তদারক করছেন।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট