কাশ্মীরের অনন্তনাগে জঙ্গিদের হামলায় শুক্রবার শহীদ হলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার জওয়ান শ্যামল দে


শনিবার,২৭/০৬/২০২০
439

কাশ্মীরের অনন্তনাগে জঙ্গিদের হামলায় শুক্রবার শহীদ হলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং থানার দান্দরা গ্রামপঞ্চায়েতের সিংপুর গ্রামের সিআরপিএফ জওয়ান শ্যামল দে(২৮)। লাদাখের পর অনন্তনাগ!

আজ সকালে, জম্মু-কাশ্মীরের অনন্তনাগের বিজেহেরায় হাই রোডের উপর টহলরত সিআরপিএফ জওয়ানদের উপর অতর্কিতে হামলা চালায় জঙ্গিরা! বাইকে করে এসে ওই টহলদারি জওয়ানদের উপর হঠাৎ করে হামলা চালায় মুখোশধারী জঙ্গিরা! পাল্টা গুলি চালায় ভারতীয় জওয়ানরাও। তখন এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় জঙ্গিরা। কিন্তু জঙ্গিদের গুলিতে ঘটনাস্থলেই

মৃত্যু হয় সিআরপিএফ জওয়ান শ্যামল কুমার দে’র। অপরদিকে, সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াইতে স্থানীয় এক বালকের মৃত্যু হয়েছে বলেও সিআরপিএফ সূত্রে খবর ।

শহীদ শ্যামল কুমার দে’র সিংপুরের বাড়িতে মৃত্যুর খবর এসে পৌঁছালে, সারা এলাকা জুড়ে নেমে আসে গভীর শোকের ছায়া! সারা রাজ্য ও জেলা জুড়ে বীর শহীদের আত্মার শান্তি কামনায় প্রার্থনা শুরু হয়েছে।

এদিকেজানা গেছে শহিদ জওয়ান শ্যামল দে ২০১৫ সালে সেনাবাহিনীতে যোগ দেন, বর্তমানে  সিআরপিএফ এর ৯০ নং ব্যাটেলিয়নে কাশ্মীরের অনন্তনাগে  কর্মরত ছিলেন। শহিদ জওয়ানের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গত ডিসেম্বরে বাড়ি এসেছিল তারপর থেকে বাড়ি আসেনি। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, মৃত শ্যামলের সঙ্গে এদিন সকালেই বাবা বাদল দে’র বাড়ির কিছু জিনিসপত্র কেনার জন্য মোবাইলে কথা হয়। তারপর দুপুর ১টা৩০মিনিট নাগাদ সিআরপিএফ অফিস থেকে ফোন আসে জঙ্গি হামলায় শহিদ হয়েছেন শ্যামল। ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে আসে সবংয়ে। শ্যামলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে যান রাজ্যসভার সাংসদ ডা. মানসরঞ্জন ভূইঞ্যাঁ, এলাকার বিধায়ক গীতা ভূইঞ্যাঁ।

পরিবারকে সমবেদনা জানান তাঁরা।,অন্যদিকে শুক্রবার সকালে পুলওয়ামা জেলার ত্রালে সেনা আর জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে তিন জঙ্গি খতম হয়েছে। এখানকার চেওয়া উল্লার গ্রামে জঙ্গি লুকিয়ে থাকার খবর পেয়ে তল্লাশি চালায় ভারতীয় জওয়ানরা। সেই লড়াইয়ে তিন জঙ্গি খতমের খবর টুইট করে জানিয়েছেন কাশ্মীর জোনের পুলিশ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট