চন্দ্রকোনা রোড এলাকাকে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করল এলাকার ব্যবসায়ীরা


শনিবার,০১/০৮/২০২০
309

পশ্চিম মেদিনীপুর:- পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতা তিন নম্বর ব্লকের চন্দ্রকোনা রোড এলাকায় করোনা সংক্রমণের আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলছে। প্রায় কুড়ি জন করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়েছে এবং ইতিমধ্যে একজন করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছে বলে স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, যার ফলে চন্দ্রকোনা রোড এলাকায় করোনা আতঙ্ক ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে। তাই চন্দ্রকোনা রোড এলাকার সর্বস্তরের ব্যবসায়ী এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিরা, ক্লাব সমন্বয় কমিটির প্রতিনিধিরা গত বুধবার এক বৈঠকের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয় যে আগামী সাতদিন সম্পূর্ণ চন্দ্রকোনা রোড এলাকা দোকানপাট হাট-বাজার সবকিছুই বন্ধ থাকবে কেবলমাত্র জরুরি পরিসেবার জন্য ওষুধ দোকান খোলা রাখা হবে বলে জানানো হয় ।তাই বৈঠকের পর ওই এলাকায় মাইকিং করে প্রচার করে আগামী সাতদিন লক ডাউন সম্পন্ন করার জন্য ঘোষণা করা হয়।

গড়বেতা তিন পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আকাশদীপ সিনহা বলেন প্রতিটি এলাকায় যেখানে কন্টেইনমেন্ট জোন রয়েছে সেখানে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পৌঁছে দেওয়া হবে এবং তিনি সর্বস্তরের মানুষকে নিয়ে করোনা নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য আবেদন জানিয়েছেন। তিনি সকলকে সচেতন হওয়ার এবং সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার, সেই সঙ্গে মুখে মাস্ক ব্যবহার করার আবেদন জানিয়েছেন। তবে যেভাবে চন্দ্রকোনা রোড এলাকায় করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যা বাড়ছে তাতে চিন্তার ভাঁজ দেখা দিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তরে কপালে, ব্লক প্রশাসন থেকে শুরু করে পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে এলাকায় মাইকিং করে সাধারণ মানুষকে সচেতনতার বার্তা দেওয়া হচ্ছে, পাশাপাশি পুলিশ প্রশাসন থেকেও মাইকিং করে অকারনে বাড়ির বাইরে বেরোনো এবং মুখে মাস্ক পরিধান করে তবেই প্রয়োজনীয় কাজের জন্য বাহিরে বেরানোর বার্তা দেওয়া হচ্ছে, পাশাপাশি লকডাউন অমান্য করলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিচ্ছে পুলিশ প্রশাসন।এর ফলে কার্যত শুনশান চিত্র গোটা চন্দ্রকোনারোড এলাকা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট