গুজরাটকে টেক্কা বাংলার


মঙ্গলবার,০৪/০৮/২০২০
885

লকডাউনের মধ্যে গ্রামীণ সড়ক নির্মাণে উল্লেখযোগ্য সাফল্য পেল বাংলা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রাজ্য গুজরাত সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যকে পিছনে ফেলে লকডাউন পিরিয়ডে কাজ শুরুর তিন মাসের মধ্যে ২৮৮ কিলোমিটার রাস্তা সম্পূর্ণ করেছে রাজ্যের পঞ্চায়েত দফতর।
#এই লকডাউন প্রিয়োর্ডে রাজ্যের ২২টি জেলায় রাস্তা সংস্কারের কাজ হয়েছে।
# রাজ্য ও কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে ৪১৪ কোটি টাকা খরচ হয়েছে।
# এইসব প্রকল্পে কাজ পেয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।
পরিযায়ী শ্রমিকরা যাতে কাজ পান তার জন্য গ্রামীণ এলাকাগুলিতে একশো দিনের কাজ সহ নানা সরকারি প্রকল্পের কাজ চালিয়ে যেতে নির্দেশ দিয়য়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত ২২ এপ্রিল লকডাউনের ২৯ তম দিনে গ্রামীণ সড়ক নির্মাণের কাজে হাত দেয় রাজ্যের পঞ্চায়েত দফতর। আর তাতেই এল সাফল্য।
# কড়া স্বাস্থ্য বিধি মেনে শুরু হয় কাজ।
#কোভিড প্রোটোকল মেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।
#তার পরে তাঁদেরও এই কাজে যুক্ত করা হয়।
#গ্রামীণ সড়ক নির্মাণে তাঁদের এই অংশগ্রহণ নজরকাড়া এই সাফল্যের সহায়ক হয়েছে বলে মনে করছে নবান্ন।
২০২০-২১ আর্থিক বছরে মোট ২ হাজার কিমি রাস্তা তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে পঞ্চায়েত দফতর। সেখানে গুজরাটে রাস্তা নির্মাণের লক্ষ্যমাত্রা ৭০০ কিমি।
রাস্তা নির্মানে বিভিন্ন রাজ্যের ছবি (করোনা প্রিয়োর্ডে)
# গুজরাটে এখনও পর্যন্ত কাজ হয়েছে মাত্র ২০০ কিলোমিটারের কিছু বেশি।
# উত্তরপ্রদেশে প্রায় ২২০ কিমি রাস্তার কাজ হয়েছে।
# উত্তরাখণ্ডে ১৬৭ কিমি।
# মধ্যপ্রদেশে ২৬৩ কিমি।
# পাঞ্জাবে মাত্র ১০ কিমি।
# অসমে ১০৪ কিলোমিটার রাস্তা তৈরি হয়েছে।
নবান্ন সূত্রে খবর, গ্রামীণ সড়ক যোজনা প্রকল্পে এ পর্যন্ত বাংলায় মোট রাস্তা নির্মিত হয়েছে ৩৪ হাজার ৫০০ কিমি। তার মধ্যে তৃণমূল জমানাতেই ২৪ হাজার কিমি নতুন রাস্তা তৈরি হয়েছে। আর করোনা প্রিয়োর্ডে এই সাফল্য রাজ্যের মুকুটে নতুন পালক বলা যেতেই পারে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট