ফের জঙ্গলমহলের ঝাড়গ্রাম জেলায় বিজেপির ভাঙ্গন অব্যাহত


রবিবার,০৬/০৯/২০২০
365

ঝাড়গ্রাম:– করোনা আবহের মাঝেই দল বদল চলছেই। সামনেই একুশের নির্বাচন সেদিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল। একুশের নির্বাচনের আগে নেতা কর্মীদের দল বদলে যে নির্বাচনে একটা বড়ো প্রভাব ফেলবে তা বলাই বাহুল্য।উনিশের লোকসভা ভোটেরও আগে থেকে জঙ্গলমহলে ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তা হারাচ্ছিল শাসক শিবির। সেই ফাঁক গলেই বিজেপির উত্থান। একসময়ে তৃণমূলের হাত থেকে এই গুরুত্বপূর্ণ এলাকা কার্যত ছিনিয়ে নেয় গেরুয়া শিবির। বিপুল জনসমর্থনে গত লোকসভা ভোটে জঙ্গলমহলে সবুজ একেবারে ফিকে হয়ে কার্যত গেরুয়াময় হয়ে ওঠে ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া। প্রতিটি কেন্দ্রেই তৃণমূল প্রার্থীদের হারিয়ে সাংসদ নির্বাচিত হন বিজেপি প্রার্থীরা।

এই অভাবনীয় ফলাফলের জেরে আত্মবিশ্বাস কয়েকগুণ বেড়ে যায় বঙ্গ বিজেপির। হাওয়া বুঝে দলবদল করে বহু রাজনৈতিক নেতা, কর্মী ভিড়ে যান গেরুয়া শিবিরে। নতুন রাজনৈতিক পরিচয়ে শুরু করেন কাজ।কিন্তু কয়েক মাস যেতে না যেতেই মোহভঙ্গ। দলে দলে বিজেপি ত্যাগের হিড়িক পড়েছে ঝাড়গ্রামে ।ফের জঙ্গলমহলের ঝাড়গ্রাম জেলায় বিজেপির ভাঙ্গন অব্যাহত। রবিবার ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রাম ব্লকের চাঁদাবিলা ২ নং অঞ্চলের প্রায় ৮০০ টি পরিবারের কয়েক হাজার বিজেপির নেতাসহ কর্মী সমর্থক তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করলেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিলেন ঝাড়গ্রাম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি দুলাল মুর্মু।এদিন দুলাল মুর্মু ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গোপিবল্লভপুরের বিধায়ক চুড়ামনি মাহাত,উজ্জ্বল দত্ত সহ তৃনমুলের প্রথম সারির নেতা নেত্রীরা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট