গ্রামবাসীদের হাতে বেধড়ক মারধর খেল এক করোনা যোদ্ধা


শুক্রবার,১৬/১০/২০২০
341

পশ্চিম মেদিনীপুর:- কোভিড হাসপাতালের কর্মী হওয়ায় ১৫ দিন পর বাড়ি ঢুকতে গিয়ে গ্রামবাসীদের হাতে বেধড়ক মারধর খেল এক করোনা যোদ্ধা। ঘটনাটি ঘটেছে মেদিনীপুর কোতওয়ালী থানার অন্তর্গত কুলদা গ্রামে। বর্তমানে সেক নাজিরুদ্দিন নামে ঐ যুবক গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিত্‍সাধীন মেদিনীপুর মেডিক্যালে। জানা গেছে, মেদিনীপুরের কোভিড লেবেল 1 আয়ুশ হাসপাতালের কর্মরত সেক নাজিরুদ্দিন আজ সন্ধ্যায় ছুটি পেয়ে কুলদা গ্রামে নিজের বাড়িতে যখন ফিরছিল, সেই সময় গ্রামবাসী তাকে গ্রামে ঢুকতে বাধা দেয় এবং বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। এরপরেই অন্যান্য সহকর্মীরা খবর পেয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় ঐ যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। কোতওয়ালী থানায় অভিযোগ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার না করা পর্যন্ত আগামীকাল থেকে মেদিনীপুর ও শালবনী কোভিড হাসপাতালে কাজ বন্ধ রাখার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন করোনা যোদ্ধারা।মহামারী যোদ্ধাদের কেন মারধর, হেনস্থার শিকার হতে হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট