ঘুরতে ঘুরতে পৌঁছে গেলাম রায়পুর রাজবাড়ী, রীতিমতো গাছমছমে পরিবেশ


সোমবার,১৪/১২/২০২০
913

সৌমি নাথ: শান্তিনিকেতন আর সোনাঝুরির বন সবারই চেনা। দুদিনের ছুটি পেলে রবি ঠাকুরের বাড়ী, খোয়াই , কোপাই নদীর ধার , লাল মাটির রাস্তা আমাদের বাঙালিদের এক অত্যন্ত প্রিয় অবসরের জায়গা বিশেষ করে তা যদি শীত বা বসন্ত হয়। সেরকমই একপ্রকার মনভাব নিয়ে বেড়িয়ে পড়েছিলাম দুদিনের জন্য লকডাউনের একঘেয়েমি কাটাতে। কিন্তু এবারে ঘুরতে ঘুরতে পৌঁছে গেলাম রায়পুর রাজবাড়ী।

ছবি : সৌমি নাথ

রীতিমতো গাছমছমে পরিবেশে শ্রীনিকেতন থেকে একটু ভেতরে মেঠো রাস্তা পেড়িয়ে খ্যাপা কালী মায়ের মন্দির । তারি কাছে এই বিশাল পরিত্যক্ত রাজবাড়ী। লোকজনের বিশেষ যাওয়া আসা নেই।রাজবাড়ীর প্রবেশ পথ বলে আলাদা করে কিছুই অবশিষ্ট নেই আর. এই রাজবাড়ীর ইতিহাস সম্পর্কে সঠিক তথ্য তেমন পাওয়া যায়নি। যদিও লোকোমুখে সোনা যায় রাজা দুর্জন সিঙ্ঘের সময়ের রাজপ্রাসাদ এটি , যেটি বিশেষ কোন কারণে আজ এই ভাবে পরিত্যাক্ত।

ছবি : সৌমি নাথ

উনবিংশ শতকের শেষে আনুমানিক এই রাজবাড়ীটি তৈরি হয়। এখন সূর্যাস্তের পর এর আশেপাশে ঘোরাফেরা কঠোর ভাবে নিষিদ্ধ। খুবিই অদ্ভুত ভাবে রাজবাড়ীটির নিচের একটি তলা সম্পূর্ণ রূপে পুড়ে গেছে কিন্তু কি কারনে সেটা অজানা। ভর দুপুরেও ২০ মিনিটএর বেশি এই রাজবাড়ীতে কাটাতে বেশ গায়ে কাঁটা দিয়ে উঠছিল।এরপরে শান্তিনিকেতন গেলে ঘুরে আসতে পারেন রায়পুরের এই গাছমছমে রাজবাড়ী থেকে ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট