“জয় শ্রীরাম” করলে এবার পাল্টা প্রত্যাঘাতের হুমকি তৃণমূল নেতার


রবিবার,২০/১২/২০২০
411

হাওড়া: মানুষের জন্য কিছু কাজ না করে রাতের বেলা শুধু ৮ – ১০টা বাইক নিয়ে “জয় শ্রীরাম”, “জয় শ্রীরাম” করলে এবার পাল্টা প্রতিঘাত, প্রত্যাঘাত হবে বলে হুমকি দিলেন হাওড়া পুরসভার বিদায়ী পুরবোর্ডের মেয়র পারিষদ সদস্য তথা উত্তর হাওড়ার তৃণমূল নেতা গৌতম চৌধুরী। রবিবার হাওড়ার বিক্ষুব্ধ তৃণমূল নেতা বাণী সিংহ রায়ের খাসতালুক ৬ নং ওয়ার্ডে বিশাল মিছিল করে তৃণমূল।সেখানেই গৌতমবাবু সংবাদমাধ্যমের সামনে ওই মন্তব্য করেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমর্থনে এদিন গৌতম চৌধুরীর নেতৃত্বে ওই মিছিল হয়। এদিন গৌতমবাবুকে প্রশ্ন করা হয় হাওড়াতেও দলের প্রতি বিক্ষুব্ধ হয়ে অনেকে বিজেপিতে চলে যাচ্ছেন বা দলবিরোধী কথা বলছেন। এই ব্যাপারে গৌতমবাবু বলেন, “বিজেপিতে কে গেলো আর কে এলো তাতে কিছু যায় আসে না। ১৯৯৮ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন দল তৈরি করেছিলেন তখনও কেউ ছিলনা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন। আর হাওড়ায় একমাত্র নেতা অরূপ রায় ছিলেন। অরূপ রায় এখনও রয়েছেন। সুতরাং হাওড়ায় কোনও অসুবিধা নেই। কোনও খামতি নেই। কোনও গাফিলতি নেই। কোনও পিছিয়ে পড়ার ব্যাপার নেই। দিনকে দিন আমাদের মিছিলে লোক আরও বাড়ছে।

বিজেপি ত্রাণের সময় মানুষের ঘরে চাল দিলনা। ডাল দিলনা। একটা মানুষকেও হাসপাতালে পৌঁছে দেয়নি ওরা। যা কাজ করেছে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরাই করেছে। আমফানে গাছ পড়ে গেছে। মানুষের ঘরের চাল উড়ে গেছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সাহায্য করা হয়েছে। এইসব কাজ না করে রাতের বেলা শুধু ৮ – ১০টা বাইক নিয়ে “জয় শ্রীরাম”, “জয় শ্রীরাম” করলে এবার পাল্টা প্রতিঘাত, প্রত্যাঘাত হবে।”

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট