পুরসভায় অবিলম্বে নির্বাচন করার দাবিতে উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হল হাওড়া জেলা সিপিএম।


মঙ্গলবার,০৫/০১/২০২১
259

হাওড়া পুরসভায় অবিলম্বে নির্বাচন করার দাবিতে উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হল হাওড়া জেলা সিপিএম। সোমবার কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চে মামলাটি করা হয়। মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি হবে।এবিষয়ে সিপিএম হাওড়া জেলা সম্পাদক বিপ্লব মজুমদার জানান,২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে হাওড়া পুরবোর্ডের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়।প্রশাসক বসিয়ে কোনওরকমে কাজ চলছে। আসলে রাজ্য সরকারের নির্বাচন করার সদিচ্ছা নেই। সিপিএম নেতৃত্বের দাবি অবিলম্বে গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে পুর নির্বাচন করা হোক। ভারতের কমিউনিষ্ট পার্টি (মার্কসবাদী) হাওড়া জেলা কমিটির তরফ থেকে দ্রুত হাওড়া পুর সভার স্বচ্ছ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার দাবিতে মহামান্য কলিকাতা উচ্চ ন্যায়ালয়ে একটি মামলা করা হয়েছে।গত ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে হাওড়া পুর সভার বিগত পুরবোর্ডের মেয়াদ শেষ হয়েছে,কিন্তু রাজ্য নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে বা সরকারের পক্ষ থেকে নির্বাচন করানোর কোনও উদ্যোগ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। এর উপর সরকারের তরফে খামখেয়ালিপনায় বারে বারে প্রশাসক, প্রশাসক মন্ডলী পরিবর্তন করে আমলাতান্ত্রিক বাস্তু ঘুঘুর বাসা নির্মাণ করা হয়েছে হাওড়া পুরনিগমে। চলছে সীমাহীন দুর্নীতি। আসলে নির্বাচন না করিয়ে, মানুষকে প্রতি পাঁচ বছর অন্তর নিজেদের আঞ্চলিক সরকার নির্বাচনের সংবিধানের ৭৪ তম সংশোধনীর মাধ্যমে সংযুক্ত হওয়া ২৪৩ অনুচ্ছেদের দ্বারা প্রদত্ত অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে।এমতাবস্থায় মানুষ পুর পরিষেবা না পেয়ে চূড়ান্ত নাজেহাল হচ্ছেন।পার্টির তরফ থেকে হাইকোর্টে করা আবেদনে বলা হয়েছে জন প্রতিনিধিত্ব আইনের ২৯ক ধারা অনুসারে ভারতের নির্বাচন কমিশন দ্বারা স্বীকৃত একটি রাজনৈতিক দল হিসাবে ভারতের কমিউনিষ্ট পার্টি মার্কসবাদী ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের মত সাংবিধানিক লক্ষ্য পূরণে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছে তার জন্মলগ্ন থেকে।
পার্টির তরফে নিযুক্ত পার্টি জেলা সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য শঙ্কর মৈত্র আদালতে হলফনামা দায়ের করেছেন। এই জনস্বার্থ মামলাটি প্রধান বিচারপতি ও অরিজিৎ ব্যানার্জীর ডিভিশন বেঞ্চে উঠবে শুনানির জন্য।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট