ঝাড়গ্রামে সভা মঞ্চ থেকে ভাষণ দিয়ে একের পর এক বিষয়ে আক্রমণ করলেন তৃণমূল কংগ্রেসকে


বুধবার,২৭/০১/২০২১
646

ঝাড়গ্রাম:- ঝাড়গ্রামে সভা করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। মঞ্চ থেকে ভাষণ দিয়ে একের পর এক বিষয়ে আক্রমণ করলেন তৃণমূল কংগ্রেসকে। এদিন দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বললেন, বাংলা একটা জিনিসেই এগিয়ে, সেটা হল খুন এবং ধর্ষণ। পাশাপাশি বাংলার বেকারত্বের পরিস্থিতি নিয়েও রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করতে ছাড়েননি তিনি।

এদিন দিলীপ বলেন, আজ রাজ্যের এমন পরিস্থিতি যে রাস্তায় বেরোলে মা-বোনেদের আচল ধরে টানা হয়, টোন-টিটকিরি কাটা হয়। খুন-ধর্ষণে এগিয়ে বাংলা, এই বলে রাজ্য সরকার তথা শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসকে একহাত নিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি তিনি আরো বলেন, আজ রাজ্যে যুবসমাজের চাকরি নেই, লক্ষ লক্ষ যুবক বাংলা ছেড়ে ভিন রাজ্যে যাচ্ছেন চাকরি করতে। তাদের ফিরিয়ে আনার জন্য রাজ্যে পরিবর্তনের ডাক দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। পাশাপাশি তিনি মনে করিয়ে দিলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলছেন পাহাড় হাসছে কিন্তু তিন বছর ধরে কেউ পাহাড় যেতে পারে না! ও দিকে বিমল গুরুং এখন তৃণমূল কংগ্রেসে গেছেন। দিলীপের কথায়, তিনি যখন পাহাড়ে গিয়েছিলেন সাধারণ মানুষের সঙ্গে দেখা করতে তখন তার পেছনে গুন্ডা লেলিয়ে দেওয়া হয়েছিল। পরে বিমল গুরুং সারা দেশ ঘুরে ঘুরে কোথাও থাকার জায়গা না পেয়ে শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পা ধরে তৃণমূলে ঢুকেছে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছিলেন কলকাতাকে লন্ডন বানাবেন, দীঘাকে গোয়া। কিন্তু আদতে কিছুই করতে পারেননি। উল্টে গোটা রাজ্যকে আফগানিস্তান আর কাশ্মীর বানিয়ে দিয়েছেন! এদিন ঝাড়গ্রামের সভা মঞ্চ থেকে এমন দাবি করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশি মন্তব্য করলেন, তৃণমূল কংগ্রেস এখন কোন ভদ্রলোকের পার্টি নয়, যারা ভদ্রলোক ছিলেন তারা সবাই চলে এসেছেন। সভায় আগতদের উদ্দেশে তিনি বলেন, এমনভাবে হারাবেন যাতে তৃণমূলের লোকেরা ঝাড়গ্রামে ঢোকার সাহস না দেখাতে পারে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট