বাংলাদেশের সুনামগঞ্জের ঘটনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র


শুক্রবার,১৯/০৩/২০২১
177

ডেস্ক রিপোর্ট, ঢাকা: ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া নিয়ে বুধবার সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, বাড়িঘর, মন্দিরে ভাঙচুর ও লুটপাটের নিন্দা জানিয়েছেন দেশের বিশিষ্টজন। ১৮ মার্চ বৃহস্পতিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘এ ধরনের জঘন্য ঘটনার নিন্দা জানানোর ভাষা আমরা হারিয়ে ফেলেছি। আমাদের প্রশ্ন, গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ অনুয়ায়ী প্রশাসনের নজরে থাকার পরেও কী করে গ্রামের মসজিদের মাইক ব্যবহার করে উগ্রবাদী ধর্মান্ধ অপশক্তিরা একত্রিত হলো এবং এই বর্বরোচিত মধ্যযুগীয় তাণ্ডব চালাল।’ বিবৃতিতে তারা বলেন, ‘ধর্মের নাম ব্যবহার করে বিগত সময়ে ঘটে যাওয়া সাম্প্রদায়িক নিপীড়নের ঘটনার উপযুক্ত প্রতিকার না হওয়ায় সময়ের ব্যবধানে ধর্মান্ধ অপশক্তির ষড়যন্ত্র ও নিপীড়ন বেড়েই চলেছে। সেই বিবেচনা থেকে সুনামগঞ্জের ঘটনাটি খুবই পরিকল্পিত ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। আমরা মনে করি, উগ্রবাদীদের এই তাণ্ডব দেশের অগ্রযাত্রা, স্থিতিশীলতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

এই ঘটনার সঙ্গে যারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জড়িত, দ্রুত তাদের গ্রেপ্তার ও বিচার, ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত, আক্রান্ত এলাকায় সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার এবং ক্ষতিগ্রস্তদের উপযুক্ত ক্ষতিপূরণের দাবি জানাই।’ বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন- পঙ্কজ ভট্টাচার্য, ডা. সারওয়ার আলী, রামেন্দু মজুমদার, ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, রোকেয়া কবির, খুশী কবির, ড. নূর মোহাম্মদ তালুকদার, অধ্যাপক এমএম আকাশ, অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস, সঞ্জিব দ্রং, কাজল দেবনাথ, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, মেজবাহউদ্দিন আহমেদ, সালেহ আহমেদ, পারভেজ হাসেম, এফএম শাহীন, আব্দুল ওয়াহেদ, ড. সেলু বাসিত, আব্দুর রাজ্জাক, অলক দাসগুপ্ত, এ কে আজাদ, জীবনান্দ চন্দ জয়ন্ত ও গৌতম শীল। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বুধবার সকালে শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে হামলা চালিয়ে ৬০-৭০টি বাড়িঘর ভাঙচুর ও আসবাবপত্র তছনছ করে হেফাজতে ইসলামীর অনুসারীরা। খবর পেয়ে শাল্লা থানা পুলিশসহ ও দিরাই থেকে বিপুল সংখ্যক পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এর আগে গত সোমবার দিরাই উপজেলায় হেফাজতে ইসলাম আয়োজিত সম্মেলনে যান হেফাজতে ইসলামের আমির জুনায়েদ বাবুনগরী ও যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকসহ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতা। সম্মেলনে মামুনুল হকের দেওয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে স্থানীয় এক হিন্দু যুবক ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন বলে পুলিশ জানায়।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট