অভাব ওদের লড়াইকে থমকে দিতে পারেনি, পাশে দাঁড়াল ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’


মঙ্গলবার,১১/০৫/২০২১
1012

হাওড়া,আমতা: অভাব ওদের লড়াইকে থমকে দিতে পারেনি। ওদের কেউ পড়াশোনার খরচ চালাতে এই বয়সেই রোজগারে নেমেছে, আবার কারও বাড়িতে অর্থাভাবে জ্বলেনি আলো-পাখা। তবু ওরা নিজেদের লক্ষ্যে অবিচল। হাজারো প্রতিবন্ধকতার বেড়াজালকে অতিক্রম করে এগিয়ে চলেছে অরিজিৎ, দীপিকা, কৃষ্ণেন্দুরা। প্রতিবছরের মতো এবারও ওদের পাশে দাঁড়াল আমতার স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’-এর সদস্যরা। করোনা সংক্রমণে রাশ টানতে স্কুল বন্ধ রাখার পাশাপাশি একাদশ শ্রেণীর পড়ুয়াদের দ্বাদশ শ্রেণীতে উত্তীর্ণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তাই আর দেরী না করে দ্বাদশ শ্রেণীর পড়াশোনা চালু করে দিয়েছে গ্রামীণ হাওড়ার দীপাংশু, সাগররা। গ্রামীণ হাওড়ার এরকমই বেশ কিছু লড়াকু মেধাবীর হাতে দ্বাদশ শ্রেণীর পাঠ্যবই, খাতা ও পেন তুলে দিলেন প্রসেনজিৎ, বিমল, রঘুনাথরা। সংগঠনের প্রতিনিধিরা পড়ুয়াদের বাড়িতে গিয়ে তাদের প্রয়োজনীয় বই ও শিক্ষাসামগ্রী পৌঁছে দেন। সংগঠনের সভাপতি অরুণ খাঁ জানান, শিক্ষায় স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে আমরা বছরভর গ্রামীণ হাওড়ার লড়াকু মেধাবীদের নিয়ে কাজ করে থাকি। অতিমারী পরিস্থিতিতেও তার অন্যথা হয়। পাশাপাশি, পড়ুয়াদের জন্য সংস্থার তরফে অনলাইন ক্লাস চালু হয়েছে বলেও অরুণ বাবু জানান।

বিজ্ঞাপন
Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট