কৃষক নিপীড়নের বিরুদ্ধে রাজা রামমোহনের বাণী হয়ে থাকবে পাথেয় : ইরফান হাবিব


রবিবার,২৫/০৭/২০২১
1085


কলকাতা: কৃষকদের বিরুদ্ধে যে শোষণ অত্যাচার নিপীড়ন ব্রিটিশ শাসনের চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে শুরু হয়েছিল রাজা রামমোহন রায় তার বিরুদ্ধাচারণ করেছিলেন। বলেছিলেন চিরস্থায়ী বন্দোবস্তের মাধ্যমে শুধুমাত্র জমিদারদের সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য বেড়েছে । একইভাবে  কৃষকদেরও চিরস্থায়ী ব্যবস্থা করা উচিত ।অধ্যাপক ইরফান হাবিব এশিয়াটিক সোসাইটি, কলকাতার উদ্যোগে রাজা রামমোহন রায়ের ২৫০ জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত ওয়েবিনারে  একথা বলেন ।ওয়েবিনারের বিষয় ছিল : “নবজাগরণ কে সংদর্ভ মে  রাজা রামমোহন রায় কী ভূমিকা ” । এই ওয়েবনারে আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দি বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক রমেশ রাবত , কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দি বিভাগের প্রাক্তন প্রধান অধ্যাপক রামআহ্লাদ চৌধুরী, হিন্দি কথাশিল্পী  শ্রী লাল সিং বক্তব্য রেখেছেন।

অধ্যাপক ইরফান হাবিব রাজা রামমোহন রায়ের জীবনের বিভিন্ন দিক উল্লেখ করে বলেন ,রাজা রামমোহন রায় ব্যক্তি-স্বাধীনতার ওপরে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছিলেন এবং ফরাসি বিপ্লবের দ্বারা বিশেষভাবে অনুপ্রাণিত হয়েছিলেন ।রাজা রামমোহনের জীবন এবং কর্ম থেকে শিক্ষা নিয়ে বর্তমান সময়ে আমাদের এগনো খুবই দরকার। আমাদের সবসময় এটা স্মরণ রাখা উচিত যে শুধুমাত্র কমিউনিস্টরাই জ্ঞানের চর্চা করে না , তার বাইরেও বহুজ্ঞানীগুণী মানুষ আছেন যারা জ্ঞান চর্চা করেন । তাঁদের জীবন এবং কর্মেরও বিশ্লেষণ করা উচিত ।  তার  থেকে শিক্ষা গ্রহণ করা জরুরি ।  অধ্যাপক রমেশ রাবত রাজা রামমোহন রায়ের জীবন এবং কর্মের পর্যালোচনা করে বলেন, রাজা রামমোহন রায়ের কাছে জাতপাতের থেকে অনেক বড় ছিল তাঁর দেশ। অধ্যাপক  রামআহ্লাদ চৌধুরী বলেন, রাজা রামমোহন রায় সতীদাহ প্রথার বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করেছিলেন এবং জয়যুক্ত হয়েছিলেন । এমনকি তিনি শ্মশানঘাটে গিয়েও সতীদাহ প্রথার বিরুদ্ধে প্রচার অভিযান চালিয়েছিলেন। হিন্দি- বাংলা -ইংরেজি এই তিন ভাষায় তিনি সতীদাহ প্রথার বিরুদ্ধে পুস্তিকা প্রকাশ এবং বিলির বন্দোবস্ত করেছিলেন । শাস্ত্রের নামে যে মিথ্যা সতীদাহ প্রথা চলছিল তাকে তিনি শাস্ত্রের উদ্ধৃতি দিয়েই খণ্ডন করেছিলেন। রাজা রামমোহন রায় শুধুমাত্র আধুনিক বাংলা ভাষা এবং গদ্য সাহিত্যের সূচনা করেন নি ,তিনি হিন্দি গদ্যেরও  নির্মাণ সম্পন্ন করেছিলেন। সেজন্য তিনি নবজাগরণের অগ্রদূত এবং আধুনিক ভারতের জনক। রাজা রামমোহন রায়ের তর্ক শাস্ত্র এবং যুক্তিবাদ সম্পর্কে  নাতিদীর্ঘ মতামত জ্ঞাপন করেন  কথাশিল্পী শ্রী লাল  সিং ।এশিয়াটিক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক সত্যব্রত চক্রবর্তী স্বাগত ভাষণ দেন।  এই ওয়েবিনারের সঞ্চালনা করেন  অধ্যাপক রামআহ্লাদ চৌধুরী।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট