মেতে উঠেছিল ভ্যালেন্টাইন্স ডে পালনে তখন শহীদের রক্তে রাঙা হয়েছিল ভূস্বর্গ পুলওয়ামা


সোমবার,১৪/০২/২০২২
348

১৪ ই ফেব্রুয়ারি সারাদেশ যখন মেতে উঠেছিল ভ্যালেন্টাইন্স ডে পালনে তখন শহীদের রক্তে রাঙা হয়েছিল ভূস্বর্গ পুলওয়ামা। পুলওয়ামায় নৃশংস জঙ্গি হামলার ঘটনায় সেদিন শহীদ হয়েছিলেন ৪২ জন বীর সেনা জওয়ান। তার মধ্যে ছিল হাওড়ার উলুবেড়িয়ার বাউড়িয়ার চককাশি গ্রামের বাবলু সাঁতরা।পুলওয়ামার জঙ্গী হামলার তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করার পর আবক্ষ মূর্তিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা জানান রাজ্যের মন্ত্রী পুলক রায়।

উলুবেড়িয়া পৌরসভা পক্ষ থেকে শহীদ বাবলু সাঁতরার নামে চেঙ্গাইল থেকে চককাশি পর্যন্ত একটি রাস্তা বাবলু সাঁতরার নামে নামকরণ করা হয়েছে। তাঁর বাড়ির সামনে একটি মূর্তি বসানো হয়েছে উলুবেড়িয়া পৌরসভার পক্ষ থেকে। আজ তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে তাকে শ্রদ্ধা জানাতে মন্ত্রী পুলক রায় ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন উলুবেড়িয়া পৌরসভার প্রাক্তন প্রশাসক অভয় দাস,হাওড়া গ্রামীণ তৃণমূল যুব সভাপতি দেবাশীষ ব্যানার্জি সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।আজ বাড়িতে গিয়ে দেখা গেল তিনতলা বাড়ির ছাদে উড়ছে জাতীয় পতাকা। গ্রামের মানুষ জড়ো হয়েছে শ্রদ্ধা জানাতে। ছুটি পেলেই বাড়িতে এসে পাড়ার ছেলেদের সঙ্গে বাড়ির পাশে খেলার মাঠে সারাদিন খেলায় মেতে থাকতো। সবই রয়েছে শুধু নেই পাড়ার ছেলে বাবলু সাঁতরা। গোটা গ্রাম ঘরের ছেলের আক্ষেপে আজও রয়েছে। খেলার মাঠেও রয়েছে কিন্তু মাঠের এক কোণে বসানো রয়েছে বাবলু সাঁতরা আবক্ষ মূর্তি। বাবলুর ছোটবেলার বন্ধু সন্দীপ পাল বলেন, ছুটিতে বাড়িতে আসলে দুজনে সব সময় একসঙ্গে থাকতাম। সিআরপিএফ এর চাকরির জন্য দু’জনেই পরীক্ষা দিয়েছিল বল জানান। বন্ধু যে নেই এই খবরটা যখন শোনে কিছুতেই বিশ্বাস করে উঠতে পারে নি বন্ধু সন্দীপ পাল। তৃতীয় বর্ষ পুর্তিতে মন্ত্রী বলেন শহীদ জওয়ানকে স্মরণ করে রাখতে উলুবেড়িয়া পৌরসভা সব সময় পাশে থাকবে পরিবারের। এই অর্থবর্ষে উলুবেড়িয়া পৌরসভা থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের শহীদ বাবলু সাঁতরার স্মৃতির উদ্দেশ্যে সংবর্ধনা দেবে।ছেলের আক্ষেপে রয়েছে আজও বাড়িতে বৃদ্ধ বাবা-মা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট