নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানো ২২ জন তৃনমূল নেতা কর্মীদের বহিষ্কার


শনিবার,১৯/০২/২০২২
316

তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশে উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর, ডালখোলা ও কালিয়াগঞ্জ পুরভোটে নির্দল প্রার্থী হিসেবে দাঁড়ানো ২২ জন তৃনমূল নেতা কর্মীদের বহিষ্কার করল উত্তর দিনাজপুর জেলা তৃনমূল কংগ্রেস সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল। শনিবার ইসলামপুরে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জেলার এই তিন পুরসভার মোট জন নেতা কর্মীকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তৃনমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল। তিনি এও বলেন, বিজেপি, কংংগ্রেস ও সিপিএম এর কোনও অস্তিত্বই নেই, আর নির্দল প্রার্থীদের সাধারন মানুষ ভোট দেয়না। ফলে তৃনমূল কংগ্রেসই ইসলামপুর, ডালখোলা ও কালিয়াগঞ্জ পুরভোটে জয়লাভ করবে। বহিস্কৃত তৃনমূল নেতা কর্মীরা জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা মানুষের সাথে কাজ করেছেন, এলাকায় তাদের প্রভাব ও ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে ফলে নির্দল প্রার্থী হিসেবেই সাধারন মানুষ তাঁদের নির্বাচিত করবেন।

কেউ দীর্ঘদিন ধরে মা মাটি মানুষের দল তৃনমূল কংগ্রেস করে এলাকার সাধারন মানুষের পাশে ছিলেন, আশা করেছিলেন পুরভোটে দল তাঁকে প্রার্থী করবে। আবার অনেকে দলের কাউন্সিল ছিলেন, ভেবেছিলেন দল এবারেও তাঁকে ওয়ার্ডে প্রার্থী করবে। কিন্তু দলের প্রার্থী তালিকা চুড়ান্ত হতেই বাদ গিয়েছেন অনেক তৃনমূল কংগ্রেস নেতা কর্মী। দলের প্রতি অভিমান বা ক্ষোভে নির্দল প্রার্থী হিসেবেই মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন অনেক নেতা কর্মী। সারা রাজ্যের ১০৮ টি পুরসভার মধ্যে উত্তর দিনাজপুর জেলার তিনটি পুরসভা ইসলামপুর, ডালখোলা এবং কালিয়াগঞ্জ পুরভোটেও এমন বিক্ষুদ্ধ নেতা কর্মীও রয়েছেন। তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছিলেন যেসব তৃনমূল নেতা কর্মী দলের গোঁজ প্রার্থী হিসেবে নির্দল হয়ে দাঁড়িয়েছেন তাঁরা যেন মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করে নেন। নতুবা দল ব্যাবস্থা গ্রহন করবে। উত্তর দিনাজপুর জেলার তিনটি পুরসভার ভোটেও ২২ জন তৃনমূল নেতা কর্মী নির্দল প্রার্থী হিসেবেই লড়াই করছেন। তাঁরা মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন নি। এবারে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে এইসব বিক্ষুদ্ধ তৃনমূল নেতা কর্মীদের দল থেকে বহিষ্কার করলেন জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট