এক পরীক্ষাথীকে সঠিক সময়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দিলেন ট্রাফিক পুলিশ


মঙ্গলবার,১৫/০৩/২০২২
1389

কলকাতা : সকাল তখন ১১টা ১০। কেঁওড়াপুকুরেরে কাছে মহাত্মা গান্ধী রোডে ট্রাফিক সামলাচ্ছেন ঠাকুরপুকুর ট্রাফিক গার্ডের সার্জেন্ট সাগর সিংহ, দেখেন কিছুটা দূরে একজন লোক সঙ্গের সাইকেলটা দাঁড় করিয়ে এদিক ওদিক কিছু একটা খোঁজ করছেন। সাইকেলটার পাশে দাঁড়িয়ে স্কুলের পোশাক পরে বছর ১৫/১৬ -এর একটি মেয়ে। দুজনকেই বেশ উদ্বিগ্ন লাগছে। ভদ্রলোকের নাম জুম্মান আলী মোল্লা ও স্কুলের পোশাকে মেয়েটি তাঁর কন্যা একজন মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। জুম্মান আলী মোল্লা কন্যাকে সাইকেলে করে পরীক্ষা কেন্দ্রে নিয়ে যাচ্ছিলেন। কেঁওড়াপুকুরেরে কাছে এসে সাইকেলের পিছনের চাকা পাঙ্কচার হয়ে যায়। আশেপাশে পাঙ্কচার সারানোর মিস্ত্রি পাচ্ছেন না। জুম্মান আলী মোল্লার কাছে পরীক্ষা কেন্দ্রে মেয়েকে ট্যাক্সি করে নিয়ে যাওয়ার মত অর্থ নেই । এদিকে সময় বয়ে যাচ্ছে। পরীক্ষা শুরুর হওয়ার আগে কিভাবে মেয়েকে পরীক্ষা কেন্দ্রে পৌঁছে দেবেন ভেবে পাচ্ছিলেন না। খবর পৌঁছায় ওসি ঠাকুরপুকুর ট্রাফিক গার্ড ইনস্পেক্টর শতদল ভট্টাচার্যের কাছে। ওসির নির্দেশে সার্জেন্ট সাগর সিংহ ও সার্জেন্ট বিজয় বাগচী বাবা মেয়েকে হেলমেট পড়িয়ে নিজেদের সরকারি মোটরসাইকেলে করে যথাসময়ে পৌঁছে দেন পরীক্ষা কেন্দ্র গাড়িয়া বীনা বালিকা বিদ্যালয়ে। একজনের মোটরসাইকেলে ওঠেন জুম্মান আলী ও অপরটিতে পরীক্ষার্থী। সময়মতই পরীক্ষা কেন্দ্রে হাসি মুখে ঢোকেন কিশোরী, তাতে আপ্লুত পিতা কলকাতা ট্রাফিক পুলিশকে অশেষ ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

তথ্যসূত্র : কলকাতা পুলিশ

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট