SSC Scam ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন বুঝলাম, যারা যারা যুক্ত আছেন বলে দিন: দিলীপ


শনিবার,৩০/০৭/২০২২
399

দিল্লি থেকে ফিরে কলকাতা বিমানবন্দরে দাঁড়িয়ে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি সাংসদ পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ষড়যন্ত্রের শিকার মন্তব্য নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন কে ষড়যন্ত্র করেছে সেটা তো বলতে হবে। ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন বুঝলাম।ষড়যন্ত্র উনিও করেছেন। সেই জন্য যারা যারা যুক্ত আছেন বলে দিন। ভদ্রলোকের মতো। আমরা তো ওনাকে ভদ্রলোক বলে মনে করি। কার কার টাকা আছে কার কাছ থেকে এসেছে কত জনের থেকে নিয়েছেন আর কাকে কাকে ভাগ দিয়েছেন সব বলতে হবে। মনে তো আমরা অনেক কিছুই করেছি বলেওছি আমরা, বলেওছি আমরা। সেটা প্রমাণিত হওয়া চাই এবং সে সবাইকে ভেতরে পাঠাতে হবে।

এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের সঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক নিয়ে বলেন, এখন তো মিটিং করতে হবে ইডি-র সঙ্গে যখন করার দরকার ছিল তখন করেননি এখন করে কি হবে মিটিং এর মূল্য কি আছে। ডিসিপ্লিন কমিটির চেয়ারম্যান নিজে অভিযুক্ত তাকে কে ইনডিসিপ্লিন করে সাজা দেবে একটা পার্টি মিটিং করতে সাতদিন সময় লেগে গেছে তাকে সরাতে। এইসব ড্রামা করে কিছু হবে না এখন সিবিআই ইডি সামনে সব বলতে হবে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে সাসপেন্ড করার নিয়ে বলেন, মহারাষ্ট্রে দুজন মন্ত্রী জেলে গিয়েছেন তারা এখনো জেলে আছেন তারা রিজাইন করেননি কিন্তু তাদের সরকার টাই চলে গেল। অনেক কিছুই হতে পারে। মুখ্যমন্ত্রী এর আগে অনেকে জেলে গিয়েছেন, হরিয়ানার শিক্ষাবিভাগে গন্ডগোলের জন্য চৌটালাকে দশ বছরের জন্য জেলে যেতে হয়েছে সুতরাং কার কপালে কি লেখা আছে সেটা ইডি ঠিক করবে আর ঠিক করবে আমরা দেখছি এত ভালো বাড়ি মন্ত্রী এত টাকা নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ট্রাঙ্কে করে সেটা বাংলায় আমরা কোনদিনও দেখিনি।

মুখ্যমন্ত্রী দিল্লি সফরে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রসঙ্গে বলেন, ঠেলায় পড়লে বিড়াল তো গাছে ওঠে। দিল্লিতে এমন কিছু দূর নয়।অর্পিতা মুখার্জীর ডায়মন্ড সিটি ফ্লাট থেকে চারটি গাড়ি নিখোঁজ হয়ে যাওয়া প্রসঙ্গে বলেন, শুধু গাড়ি নয় গাড়ির মধ্যে টাকাও উধাও এটা ইডিকে খুঁজে দেখতে হবে। কি করে উধাও হয়ে গেল সবকিছু জানার পরেও কাস্টডিতে নেওয়ার পরেও ইডি এই যে ঢিলেমি এটা মোটেও ঠিক নয়। খেলার মানুষ বহুদিন ধরে এই দিনটা খুঁজছিল এসেছে কোন রকম ভাবে যেন এদিক ওদিক না হয় কেউ যাতে পালিয়ে যেতে না পারে।

বিজেপির পরবর্তী পদক্ষেপ নিয়ে বলেন, বিজেপি সাধারণ মানুষের সঙ্গে আছেন আন্দোলন করছি যাতে তাড়াতাড়ি সব চোরদের জেলে পাঠানো যায়। বাংলাকে কলঙ্ক মুক্ত করা যায়। ব্যাপারটা যেহেতু কোর্ট আর ইডির মধ্যে আমাদের খুব বেশি কিছু করার নেই। মানুষের দেহ বিক্ষোভ আছে তার সঙ্গে আমরা আছি।

আগামী দিনে আরো কোন নেতা-মন্ত্রী গ্রেফতার হবে কিনা সেই প্রসঙ্গে বলেন, আমি প্রথম দিনই বলেছিলাম হিমশৈলের চূড়া মাত্র হাজার হাজার কোটি টাকা হবে সবে তো মাত্র দুশো আড়াইশো বেরিয়েছে আর কেষ্টদার দেড়শো বেরিয়েছে অনেক দাদাদের অনেক মাল আছে সেগুলো বার করুন। তারপর দেখি যার টাকা তাকে ফেরত দিতে হবে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট