কলকাতায় ICCR ও চার্চ আর্টের মিলিত উদ্যোগে পালিত হলো আজাদি কা অমৃত মহোৎসব


বুধবার,১৪/০৯/২০২২
1401

কলকাতা : কলকাতা স্থিত চার্চ আর্ট যারা মূলত ভারতীয় শিল্প ও সংস্কৃতির প্রচার এবং তার সংরক্ষণ তথা সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলির সৃজনশীল কাজে নিযুক্ত একটি ফার্ম এদিন ইন্ডিয়ান সেন্টার ফর কালচারাল রিলেশনের সাথে যৌথভাবে ভাবে আজাদী কা মহোৎসব ও আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস পালন করলো। উক্ত অনুষ্ঠানে নৃত্য ও সঙ্গীত পরিবেশনা ছাড়াও সাংস্কৃতিক, কলা ও সমাজ সেবায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন ব্যক্তিত্বদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। এদিনের অনুষ্ঠানে মরণোত্তর সম্মাননা প্রদান করা হয় প্রয়াত ডক্টর সুশোভন ব্যানার্জীকে, যিনি পদ্মশ্রী তথা এক টাকার ডাক্তার’ নামে বিখ্যাত ছিলেন। প্রায় ছয় দশকের কর্মজীবনে তিনি সর্বাধিক সংখ্যক রোগীর সাথে যোগদানের জন্য গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডেও তার নাম নথিভুক্ত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে চার্চ আর্টের প্রান পুরুষ শ্রী সুব্রত গাঙ্গুলী, “বলেন বিগত ২৫ বছর ধরে এই সংস্থাটি এমন সব প্রকল্পগুলির সঙ্গে যুক্ত রয়েছে যেগুলি নান্দনিকতা, উদ্ভাবন, প্রকৌশল দক্ষতা, মানবিক মূল্যবোধ এবং নৈতিক আবেদনকে সমন্বিত করে। সমগ্ৰ বিশ্বমঞ্চে ভারতীয় শিল্প ও সাংস্কৃতিকে তুলে ধরাটা আমাদের উদ্দেশ্য। এছাড়াও বিভিন্ন ইভেন্ট, প্রোগ্রাম এবং প্রকল্পের মাধ্যমে আন্তঃবিশ্বাসের সম্প্রীতি গড়ে তুলতেও আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।” তিনি আরো যোগ করেন “আজাদি কা অমৃত মহোৎসব হলো সেই সকল ব্যক্তিত্বদের সংবর্ধনা দেওয়ার একটি অনন্যসাধারণ সুযোগ যারা সমাজ এবং মানব কল্যাণে নীরবে অবদান রেখেছেন। ” এ প্রসঙ্গে উল্লেখ্য যে চার্চ আর্ট হল কলকাতার বাইরে অবস্থিত লোকনাথ ইঞ্জিনিয়ারিং এবং প্রোডাক্ট এর একটি অলাভজনক সৃজনশীল শাখা।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ICCR ইস্ট এর ডিরেক্টর মিসেস মিনাক্ষী মিশ্র, যিনি এই দুই সংস্থার মিলিত অবদানের ভূয়সী প্রশংসা করেন । অন্যদিকে ব্রেথওয়েট অ্যান্ড কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিঃ ইয়াতীশ কুমার বলেন “আমি চার্চ আর্টকে অভিনন্দন জানাই তারা যে ধরনের সামাজিক কাজ করছে তার জন্য”। তিনি আরো যোগ করেন ” এই সংস্থা সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য, প্রযুক্তিগত দক্ষতা আপগ্রেড তথা সহায়তা প্রদান করতে যেভাবে এগিয়ে আসছে তা সত্যিই প্রশংসার দাবী রাখে। তিনি আরো বলেন চার্চ আর্ট হল সমাজ এবং প্রযুক্তির মধ্যে একটি সেতুর মতো এবং তারা আমাদের প্রাচীন সমৃদ্ধ সংস্কৃতিকেও সংরক্ষণ করছে,”।

এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মিঃ এ কে দুবে, প্রধান প্রধান প্রকৌশলী (পিসিই) শিয়ালদহ ডিভিশন, ইস্টার্ন রেলওয়ে, যিনি সংবর্ধনা গ্রহণ করে বলেন “চার্চ আর্টের ভারতীয় শিল্প ও সংস্কৃতি সম্বন্ধে গভীর জ্ঞান রয়েছে, যা তাদের বিভিন্ন সৃজনশীল কাজ এবং প্রকল্পগুলিতে ভালভাবে প্রতিফলিত হয়। যা নান্দনিকতা, সংস্কৃতি, সামাজিক ক্ষেত্রে এক সমন্বয়মূলক বার্তাপ্রেরণ করে। তিনি আরো যোগ করেন ” আমি তাদের সকল ভবিষ্যৎ প্রয়াসের জন্য মঙ্গল কামনা করছি”।

উক্ত অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলেন মিসেস মিনাক্ষী মিশ্র,ICCR পূর্বের প্রধান, প্রাক্তন ICCR আঞ্চলিক প্রধান, গৌতম দে, মিয়াও ডায়োসিসের বিশপ পি কে জর্জ, অরুণাচল প্রদেশ, বন্দি ও কারাগারের সংস্কারের সাথে যুক্ত ফ্র্যার এন টি স্কারিয়া,ফাদার সি এম পল, ফ্র্যাঙ্কলিন মেনজেস, এছাড়াও রেলওয়ের সিনিয়র আধিকারিক মিঃ এ কে দুবে, মিঃ ইয়াতীশ কুমার, মিঃ এস পি সিং, মিঃ ভি কে সিং, এবং মিঃ এস এস প্রিয়দর্শী, ডাঃ অঞ্জন চট্টরাজ এবং ডাঃ মন্দিরা চট্টরাজ, বিশিষ্ট বাঁশি শিল্পী মিঃ ইন্দ্রজিৎ বসু। প্রখ্যাত গিটারিস্ট ও সাংস্কৃতিক দল আনন্দধ্বনির প্রধান শ্রী রাজা ভট্টাচার্য, ও কেয়া বিশ্বাস এছাড়াও আর্ট গ্রুপ নিবেদিয়া শক্তির প্রধান অষ্টমে শর্মিষ্ঠা। এদিন উপস্থিত সকল শিল্পিদের বিভিন্ন পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যার আয়োজন করেন আয়োজকরা।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট