স্বাস্থ্যে নতুন দিগন্ত বাংলার সরকারের


শনিবার,২৫/০৩/২০২৩
671

বিদিতা ঘোষ: গত ১২ বছরে রাজ্যে স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। বেড়েছে মেডিকেল কলেজের সংখ্যা। বেড়েছে ডাক্তারি পড়ার আসন সংখ্যা। গত ১২ বছরে রাজ্যে চিকিৎসকের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় পাঁচ গুন। স্বাস্থ্য দপ্তরের দাবি, সরকারি উদ্যোগে রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটেছে।
লোকেটার – কলকাতা

বাম আমলে সরকারি হাসপাতালের নাম শুনলেই নাক সিটকাতেন সাধারণ মানুষ। ২০১১ সালে রাজ্যে পালাবদলের পর স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় নতুন দিগন্ত খুলেছে। গত ১২ বছরে রাজ্যে চিকিৎসকের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় পাঁচ গুন। বাম আমলে রাজ্যে চিকিৎসকের সংখ্যা ছিল ৪ হাজার ৮০০। সংখ্যাটা বর্তমানে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮,২১৩ জন। বিভিন্ন মেডিকেল কলেজে ডাক্তারি পড়ার আসন সংখ্যা ছিল ১৩৫৫ টি। ২০২২ সাল পর্যন্ত সেই সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪৮৫০। বলা যায় রাজ্যের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে এটা একটা মাইলস্টোন।

বাম আমলে রাজ্যে মেডিকেল কলেজের সংখ্যা ছিল ১০টি

তৃণমূল সরকারের আমলে সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৩টি

বাম আমলে রাজ্যে ডাক্তারি পড়ার আসন সংখ্যা ছিল১,৩৫৫

তৃণমূল আমলে সেই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪,৮৫০

বাম আমলে রাজ্যে চিকিৎসকের সংখ্যা ছিল ৪৮০০ জন

তৃণমূলের আমলে সংখ্যাটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮,২১৩ জন

বাম আমলে রাজ্যে ছিল না কোন সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল

বর্তমানে রাজ্যে ৪২ টি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল গড়ে উঠেছে

স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে এখন রাজ্যের মানুষ বিনামূল্যে চিকিৎসা পাচ্ছেন। এমনকি আউটডোরের টিকিটও পাওয়া যাচ্ছে বিনামূল্যে। রাজ্যের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে ওষুধ থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের পরীক্ষা হচ্ছে বিনামূল্যে। রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে ‘দুয়ারে ডাক্তার’ কর্মসূচি চলছে। রাজ্যের সাধারণ মানুষ ঘরের দুয়ারেই পেয়ে যাচ্ছেন চিকিৎসা পরিষেবা। স্বাস্থ্য দপ্তরের দাবি, সরকারি উদ্যোগে রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটেছে।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট