পৌর সংস্থার কন্ট্রোল রুমে বসে তদরাতি করলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম


রবিবার,০৩/০৯/২০২৩
4641

জল জমা পরিস্থিতি খুঁটিয়ে দেখতে কলকাতা পৌর সংস্থার কন্ট্রোল রুমে বসে তদরাতি করলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। সঙ্গে ছিলেন পৌর কমিশনার বিনোদ কুমার, ডি জি নিকাশি বিভাগ শান্তনু কুমার ঘোষ সহ কন্ট্রোল রুমের আধিকারিক ও কর্মীরা। এদিন তিনি নিজে কোন জায়গায় কত জল জমেছে কন্ট্রোল রুমের জাইন্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে পরিস্থিতি খুঁটিয়ে দেখেন। তিনি সিসিটিভি ফুটেজের মাধ্যমে কলকাতার বেশি কয়েক টি গুরুত্বপূর্ন রাস্তায় জল জমা পরিস্থিতি তদারাতি করে দেখেন। তার পর তিনি জানান যেহুতু মেয়র পরিষদ নিকাশি তারক সিংহ অসুস্থ তাই তিনি নিজেই শহরের জল জমা পরিস্থিতি দেখতে এলেন। এদিন ভবানীপুরে ভাঙ্গা বাড়ি নিয়ে বলেন যে আমরা অনেক দিন আগেই এই বিপদজনক বাড়ি কে ফাঁকা করার জন্য নোটিশ দিয়েছিলাম। দুই একজন মানুষ বাড়ি ফাঁকা করলেও অনেকেই বাড়ি ফাঁকা করেননি। তাই আমরা বলেছি যে বিপদজনক অংশ ভেঙে ফেলতে যাতে কোনো রকম সমস্যা না হয়।

অন্যদিকে এদিন মেয়র পরিষদ তারক সিংহের সঙ্গে তার কোনো সমস্যা নেই বলে সাফ জানালেন তিনি। মেয়র বলেন তারক দা আমার দাদার মত। আমার সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছে। তার জ্বর এসেছে। তাই ভাবাবেগ হয়ে তিনি এইসব কথা বলেছেন। তবে তার সঙ্গে কথা বলে সমস্যা মিতে গেছে বলে দাবি করেন তিনি। মেয়র এদিন বলেন যে আসলে কিছু নিচু তলার কর্মীরা রয়েছেন যারা ভুল তথ্য পরিবেশিত করছেন। অনেক জায়গায় জল জমে আছে। কিন্তু তারা সেই তথ্য দিচ্ছে না। এবার অনেক জায়গায় গলিপিটে পলিথিন, চিপসের প্যাকেট ফেলে দিচ্ছেন কিছু মানুষ। যার ফলে সেই গালিপিট এর মুখ আটকে যাচ্ছে। আর সেই সব জায়গায় জল জমার পরিস্থিতি হচ্ছে। মানুষ দের ও বুঝতে হবে যেখানে সেখানে এই সব না ফেলে সঠিক জায়গায় ফেললে এই পরিস্থিতি হবে না। তাই তিনি জোর দিয়ে জানান যে তারক সিংহ আমার মেয়র পরিষদ। আমরা একটা টিম আর সবাই মিলে আমরা কাজ করি। ছোটখাটো বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে কোনো পার্থক্য নেই বলে এদিন জল জমার বিতর্কতে ইতি টানলেন খুদ মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট