দিল্লিতে ইডি দফতরে হাজিরা দিচ্ছেন না মহুয়া, কিন্তু কেন?


শুক্রবার,২৯/০৩/২০২৪
501

নির্বাচনী নির্ঘণ্ট ঘোষণার পর দেশজুড়ে নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। নদীয়ার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্র থেকে এবারও ভোটযুদ্ধে নেমেছেন তৃণমূল প্রার্থী হিসাবে মহুয়া মৈত্র। অর্থের বিনিময়ে সংসদে প্রশ্ন সংক্রান্ত মামলায় তার সাংসদ পদ কয়েক মাস আগে খারিজ হয়েছিল। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবারের লোকসভা নির্বাচনেও কৃষ্ণনগরে মহুয়া মৈত্রের ওপর আস্থা রেখেছেন। তাঁকেই এবারও প্রার্থী করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। নাম ঘোষণার পর থেকে কৃষ্ণনগরের বিভিন্ন এলাকায় প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন মহুয়া। এরই মধ্যে কেন্দ্রীয় এজেন্সি তৎপর হয়ে উঠেছে। সংসদে অর্থের বিনিময়ে প্রশ্ন সংক্রান্ত মামলায় সিবিআই তরফ থেকে মহুয়া মৈত্রের বেশ কয়েকটি বাড়িতে তল্লাশি চালানো হয়। এবার বিদেশী মুদ্রা লেনদেন সংক্রান্ত মামলায় ইডি তলব করেছে তাঁকে। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে ইডি দফতরে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

তবে মহুয়া মৈত্র হাজিরা দিতে যাচ্ছেন না। নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত থাকার কারণে দিল্লিতে যাবেন না তিনি। ইডি আধিকারিকদের চিঠি লিখে তা জানিয়ে দেওয়া হবে মহুয়া মৈত্রের পক্ষ থেকে। কৃষ্ণনগরের প্রাক্তন সাংসদ এর ঘনিষ্ঠ মহল থেকে এই খবর পাওয়া গিয়েছে। মহুয়া মৈত্র বৃহস্পতিবার কৃষ্ণনগরের কালীগঞ্জ এলাকায় নির্বাচনী প্রচারে ব্যস্ত থাকবেন। পোড়াগাছা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় বেশ কয়েকটি কর্মসূচি রয়েছে তাঁর। তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ মহুয়া মৈত্রের নির্বাচনী প্রচারে বাধা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে ব্যবহার করছে বিজেপি। কিভাবে মহুয়া মৈত্রের প্রচার বন্ধ রাখা যায় তার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। যখন ভোটের নির্ঘণ্ট বেজে গিয়েছে, প্রার্থীরা ব্যস্ত ভোট প্রচারে সেই সময় কেন বারবার কেন্দ্রীয় এজেন্সির এই তৎপরতা, প্রশ্ন তৃণমূল কংগ্রেসের। তৃণমূল কংগ্রেসের বর্ষীয়ান সাংসদ সুখেন্দু শেখর রায় অভিযোগ করে বলেন পরিকল্পিতভাবে বিজেপি, কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করছে। যেখানে কলকাতায় ইডির দপ্তর রয়েছে তখন কেন দিল্লিতে তলব করা হলো? এর মধ্যে গভীর রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র রয়েছে বলে অভিযোগ।

Loading...
https://www.banglaexpress.in/ Ocean code:

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট