জগন্নাথদেব মাসির বাড়ির পথে রওনা হলেন


শনিবার,১৮/০৭/২০১৫
859

খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ  নবকলেবরে জগন্নাথ, বলভদ্র, সুভদ্রা। ২১ শতকের মধ্যে এ বছরই মহাপ্রভু জগন্নাথ দেবের প্রথম নবকলেবর।তাই অনান্য বারের তুলনায় এবছর ভিড়টা বেশি।দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তো এসেছেই এমনকি রথযাত্রা উপলক্ষে দেশ বিদেশ থেকে এসেছেন ধর্মপ্রাণ মানুষেরা। নবকলেবর জগন্নাথদেবের মানবলীলার প্রধান অনুষ্ঠান। গতকাল পুরির মন্দিরে নবযৌবন উত্সব বা জগন্নাথের নবকলেবর ধারণপর্বের সমাপ্তি ঘটে। আর আজ, মাসির বাড়ি, অর্থাৎ ৩ কিলোমিটার দূরের গুন্ডিচা মন্দিরর উদ্দেশে যাত্রা। তার আগে দেড় মাস ধরে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে চলে এই নবকলেবর। ইতিমধ্যেই মন্দির চত্বর এলাকা থেকে মাসির বাড়ি পর্যন্ত পুরো এলাকাটি মুড়ে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তার চাদরে। ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ওড়িশা সরকার সূত্রে জানা গেছে, এ বছর প্রায় ৩০ লক্ষ পর্যটক জগন্নাথ দেবের দর্শনে এসেছেন। পুরো এলাকা জুড়ে ১০০টি জলের আউটলেট খোলা হয়েছে । এমনকী, ২ হাজার টিউবওয়েল ও ৩ হাজার অস্থায়ী শৌচালয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে । পুরির সমস্ত হোটেল লজ জনঅরণ্যে পরিণত হয়েছে । ৫০০টি হোটেল, ২০০টি লজ, ১০০টি আশ্রম ও ধর্মশালা পর্যটকদের দখলে। এ ছাড়াও, ৩৩টি নবকলেবর ভিলেজও তৈরি করা হয়েছে। প্রত্যেক পর্যটকদের জন্য ফ্রি বাসেরও ব্যবস্থা করা হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে। মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক সকল দর্শনার্থীদের শুভেচ্ছাবার্তা জানিয়েছেন। এ রাজ্যেও রথ যাত্রার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চলছে। রথযাত্রা উপলক্ষে সেজে উঠেছে ইস্কন থেকে মাহেশ। এছাড়াও রয়েছে বনেদি বাড়িগুলি। জগন্নাথ, বলভদ্র এবং সুভদ্রকে নিয়ে রথ উপলক্ষ্যে পুজোর আয়োজন হয় অনেক বনেদি বাড়িতেও। সে প্রস্তুতিও প্রায় শেষ। এছাড়াও শহরের বেশ কয়েকটি নামী বারোয়ারি দুর্গাপুজোর খুঁটি পুজো আজ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট