ক্রিকেট মাঠ ? না মারামারির ময়দান


বুধবার,২৩/০৯/২০১৫
342

 খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ    মাঠে দুই দলের খেলোয়াড়ের মধ্যে মৌখিক সেজিংয়ের ঘটনা অহরহ। কিন্তু গায়ে হাত তুলে মারামারির ঘটনা বিরল। কিন্তু এবার এখন বাজে ঘটনা ঘটলো বারমুডার ঘরোয়া ক্রিকেটে। তাও আবার শুধু গায়ে হাত তোল নয়, পুরো ধস্তাধস্তি করে মাটিতে লুটিয়ে মারামারি করা। অবশ্য এমন জঘন্য কাজ করে পার পাননি বারমুডা জাতীয় দলের খেলোয়াড় জেসন অ্যান্ডারসন। তাকে আজীবন নিষিদ্ধ করেছে বারমুডা ক্রিকেট বোর্ড।

ঘটনায় জড়িত অন্য খেলোয়াড় জর্জ ও’ব্রেইনকে ৬ মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ঘটনা দু’দিন আগের। বারমুডার ঘরোয়া লীগে মুখোমুখি হয় ক্লেভেল্যান্ড ও উইলো কাটস ক্রিকেট ক্লাব। উইলো কাটসের হয়ে তখন ব্যাট করছিলেন ও’ব্রেইন। কোনো একটা বিষয় নিয়ে তার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় ক্লেভেল্যান্ডের উইকেটরক্ষক অ্যান্ডারসনের। এ সময় হঠাৎ অ্যান্ডারসন দৌড়ে গিয়ে ও’ব্রেইনের মাথায় ঘুসি মারেন। ও’ব্রেইন ঘুরে ব্যাট দিয়ে আঘাত করতে ব্যর্থ হন। সামান্য ঝামেলার পর পরিস্থিতি ঠান্ডা হওয়ার দিকে যায়। কিন্তু অ্যান্ডারসন ফের ও’ব্রেইনের দিকে তেড়ে যান। এক পর্যায়ে দু’জনের মধ্যে তুমুল মারামারি শুরু হয়।

দু’জন মাটিতে পড়ে ধস্তাধস্তি করে মারামারি করেন। মাঠের অন্য খেলোয়াড় ও আম্পায়ার তাদের আলাদা করা চেষ্টা করেন। এক পর্যায়ে মাঠের বাইরে থেকে অন্যান্যরা গিয়ে তাদের নিবৃত্ত করেন। ক্লেভেল্যান্ড ক্লাবের প্রেসিডেন্ট চার্লটন স্মিথ তখন মাঠে ছিলেন। তিনি মাঠের মধ্যে গিয়ে নিজ দলের খেলোয়াড় অ্যান্ডরসনকে ধমক দেন। তাকে মাঠ থেকে বের হয়ে যাওয়ার নির্দেশ দেন। এমন পরিস্থিতি নিয়ে বারমুডার ক্রিকটে বোর্ড বিশেষ মিটিংয়ে বসে অ্যান্ডারসনকে আজীবন নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়। আর মাঠে এমন ঘটনার জন্য ক্রিকেট বিশ্বের দর্শকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেছে তারা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট