জীবনতলায় জামাইবাবুর হাতে শ্যালিকা খুন


শনিবার,১৮/০৮/২০১৮
342

গোপাল ঠাকুর---

জীবনতলা: দিদির বাড়িতে বেড়াতে এসে নৃশংস ভাবে খুন হল এক তরুণী। নিহত তরুনীর নাম রাকিবা গাজী(২০)। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকালে দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার জীবনতলা থানার বাগমারী গ্রামে। ঐ তরুণীকে গলা কেটে খুন করা হয়েছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় ঐ তরুণীর জামাইবাবুর হাত রয়েছে বলে দাবী স্থানীয়দের। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত জামাইবাবু জিয়ারুল মোল্লা পলাতক।

উল্লেখ্য বছর পাঁচেক আগে রাকিবার দিদি হাবিবা গাজীর সাথে বিয়ে হয় জিয়ারুল মোল্লার। বিয়ের পর থেকে কোনদিন কোন অশান্তি হয়নি বলেই দাবী পরিবারের লোকজনের। গত মঙ্গলবার বাসন্তীর বল্লারটোপ গ্রাম থেকে ভাই মিন্টু গাজীকে সাথে নিয়ে রাকিবা জীবনতলা থানার বাগমারী গ্রামে দিদির বাড়িতে বেড়াতে আসে। শনিবার ভোরে জামাইবাবু জিয়ারুল মিন্টুকে মাছ আনতে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে বেরিয়ে যায়। কিছুদূর যাওয়ার পর মিন্টুকে এক জায়গায় বসিয়ে রেখে একটু আসছি বলে সেখান থেকে চলে আসে জিয়ারুল। কিন্তু দিনের আলো ফুটে গেলেও জামাইবাবু ফিরে না আসায় দিদির বাড়িতে ফিরে যায় মিন্টু।

সেখানে গিয়ে মিন্টু দেখতে পায় তার দিদি রাকিবার রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে ঘরের মধ্যে।গলা কেটে খুন করা হয়েছে তাকে। বাড়িতে জিয়ারুলের সাইকেল পড়ে থাকলেও জিয়ারুল সেখানে ছিল না। ঘটনার পর থেকেই পলাতক জিয়ারুল।এই কারণেই স্থানীয়দের দাবী জিয়ারুল রাকিবাকে খুন করে পালিয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে জীবনতলা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠিয়েছেন। ঠিক কি কারণে তরুণীকে খুন করা হয়েছে এবং নৃশংস খুনের ঘটনার পিছনে কে বা কারা জড়িত রয়েছে সে বিষয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জীবনতলা থানার পুলিশ। তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান রাকিবার সাথে সম্ভবত জিয়ারুলের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল, বিষয়টি যাতে জানাজানি না হয়ে যায় সেই কারণেই খুন করা হয়েছে তাকে।

এবারবাংলা এক্সপ্রেসআপনার মোবাইলে, ডাউনলোড করুন বাংলা এক্সপ্রেস ফ্রি মোবাইল অ্যাপ 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট