যুক্তরাষ্ট্র জিম্মি ও ইতালি সহ নিজের দেশের নাগরিককে হত্যা করেছে।


শুক্রবার,২৪/০৪/২০১৫
373

 খবরইন্ডিয়াঅনলাইনঃ       পাকিস্তানের আফগান সীমান্তের কাছে আল কায়েদার আস্তানায় চালানো এক ড্রোন হামলায় ভুল করে জিম্মি নিজেদের এক নাগরিকসহ ইতালীয় এক নাগরিককে হত্যা করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

জানুয়ারিতে ঘটা এ অনিচ্ছাকৃত ঘটনার জন্য বৃহস্পতিবার ক্ষমা চেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বরাক ওবামা।

ক্ষমা চেয়ে এ ঘটনাসহ সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের “সব দায়” স্বীকার করেছেন তিনি।

পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইয়েমেনসহ অন্যান্য এলাকায় ইসলামি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে চালানো যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন অভিযানের জন্য এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা একটি বিপর্যয় বয়ে এনেছে। ড্রোন হামলায় বেসামরিক নাগরিকদের মৃত্যুর জন্য ভুক্তভোগী দেশগুলো ও যুক্তরাষ্ট্রের মানবাধিকার গোষ্ঠিগুলো দীর্ঘদিন ধরেই সমালোচনা করে আসছিল।

জানুয়ারির ওই হামলার নিহতরা ছিলেন ত্রাণকর্মী। এদের মধ্যে মার্কিন নাগরিক ওয়ারেন উইনস্টেইনকে ২০১১ সাল থেকে জিম্মি করে রেখেছিল আল কায়েদা। ইতালীয় নাগরিক জিওভান্নি লো পোর্তো ২০১২ সালে পাকিস্তান থেকে নিখোঁজ হন।

এরা ছাড়া ওই ড্রোন হামলায় আল কায়েদা নেতা মার্কিন নাগরিক আহমেদ ফারুকও নিহত হন বলে জানিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা।

এই হামলার পাঁচ দিনের মাথায় অপর এক ড্রোন হামলায় আল কায়েদার সদস্য আরেক মার্কিন নাগরিক অ্যাডাম গাডান নিহত হন।

একই ধরনের ভুলের পুনরাবৃত্তি রোধের জন্য পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন ওবামা।

হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “যা ঘটেছে তার জন্য আমি গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি। যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের পক্ষ থেকে আমি ওই পরিবারগুলোর কাছে আন্তরিকভাবে ক্ষমা প্রার্থনা করছি।”

যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সিআইএ ওই আস্তানাটি বেশ কিছুদিন ধরে পর্যবেক্ষণ করলেও এখানে জিম্মিদের রাখা হয়েছে ধারণা করতে পারেনি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট