বালুরঘাটের পাল বাড়ির দুর্গা পুজো


বুধবার,১৪/১০/২০১৫
460

পরিতোষ বর্মণঃ    দক্ষিণ দিনাজপুরের প্রাচীন পারিবারিক পূজাগুলির মধ্যে অন্যতম বালুরঘাটের কংগ্রেসপাড়ার পাল বাড়ির দুর্গাপূজা। আনুমানিক ৩৫০ বছর আগে আত্রেয়ী নদীর পাশে নিজের বাড়িতেই এই পূজা শুরু করেছিলেন গৌড়ী পাল। গৌরী পালের সময় থেকে আজও একই নিয়মে দেবী দুর্গার পূজা হয়ে আসছে এখানে। ঠিক একই রকম ভাবে ভক্তি ও নিষ্ঠা সহকারে এবারেও পালবাড়ির পুজার প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে।
লোক মুখে শোনা যায়, এক সময় বালুরঘাটে বেশ প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবে গৌরী পাল পরিচিত ছিলেন। তিনিই প্রথম এই দূর্গা পূজার প্রচলন করেন। খড় ও বাঁশের তৈরি মন্দিরে অধিষ্টিত দেবীর পূজা শুরু হয়। গৌরী পাল এবং তাঁর উত্তরসূরীদের অবর্তমানে প্রায় বছর ৮০ আগে পাল বাড়ির দুর্গাপূজা পরিচালনার দায়িত্ব নেন প্রতিবেশিরা। সেই থেকে এই পূজার শুরু হয়েছে আসছে আজও। তবে বারোয়ারী উদ্যোগে এই পূজা আয়জিত হলেও এখনও পাল বাড়ির দুর্গাপূজা নামেই পরিচিতি এই পূজা প্রাঙ্গন। কথিত আছে এখানে নিষ্ঠার সঙ্গে দেবীর কাছে কেউ কিছু মানদ করলে তা পূরণ হয়। শুধুমাত্র জেলাবাসি নয় পাশাপাশি অন্য জেলার মানুষরা এখানে পুজা দিতে আসেন ও মানদ করেন। এছাড়াও প্রতিবছর পূজার সময় এলাকার বহু মানুষ নিজ নিজ মানদ শোধ দিতে সোনার গয়না, দেবীর পরিধেয় বস্ত্র এবং পূজার নানা উপকরণ নিয়ে হাজির হন এখানে। পুজোর কয়েকটা দিন এলাকাবাসিরা অন্য কোন পুজা মন্ডপে না গিয়ে এখানে আনন্দে উৎসবে মেতে ওঠেন। এই পূজার বিশেষত্ব হল নবমী ও দশমীর দিনে দেবীকে পান্তাভাত, বোয়াল মাছের ভোগ দেওয়া হয়। বাকি দিন গুলিতে নিরামিষ ভোগই দেওয়া হয়। Paritosh Barman_photo

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট