অভিনেতা পীষূষ গঙ্গোপাধ্যায়


বৃহস্পতিবার,২৯/১০/২০১৫
540

   পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় ২ জানুয়ারি, ১৯৬৫ – ২৫ অক্টোবর, ২০১৫ ছিলেন একজন বাংলা চলচ্চিত্র, টেলিভিশন ও নাট্য অভিনেতা। ২০০৫ সালে মহুলবনীর সেরেঙ ছবিতে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্বচরিত্র অভিনেতা হিসেবে বেঙ্গল ফিল্ম জার্নালিস্টস’ অ্যাসোশিয়েশন অ্যাওয়ার্ড পান।

পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় তাঁর কর্মজীবন শুরু করেন নাবার্ডের কর্মচারী হিসেবে। পরে তিনি অভিনয় জগতে চলে আসেন। তিনি কলকাতার নাট্যমঞ্চে অভিনয় শুরু করেছিলেন। বাংলা নাটকে অভিনয়ের সঙ্গে তিনি প্রথম থেকে যুক্ত ছিলেন। ব্রাত্য বসু, বিভাস চক্রবর্তী, অরুণ মুখোপাধ্যায়রমাপ্রসাদ বণিক প্রমুখ নাট্যব্যক্তিত্বের সঙ্গে তিনি মঞ্চে অভিনয় করেন।

পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় বাংলা টেলিভিশনেরও প্রতিষ্ঠিত ও জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন। তিনি অঞ্জন দত্ত, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, অপর্ণা সেন প্রমুখ পরিচালকদের পরিচালিত চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেন।

১৯৯০-দশকের মধ্যভাগ থেকে ২০১০-এর দশকের মধ্যভাগ পর্যন্ত তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তিনি টেলিভিশনে অভিনয় শুরু করেন আবার যখের ধনধারাবাহিকে অভিনয়ের মাধ্যমে। তাঁর অভিনীত কয়েকটি জনপ্রিয় ধারাবাহিক হল জল নূপুর, আবার যখের ধনআমোদিনী। তিনি মা ভার্সেস বউমানামে একটি রিয়েলিটি শো সঞ্চালনা করেছিলেন। তাঁর অভিনীত জনপ্রিয় চলচ্চিত্রগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য ল্যাপটপ, রহস্য চলচ্চিত্র ব্যোমকেশ বক্সী এবংশরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনের নির্মিত চলচ্চিত্র ইতি শ্রীকান্ত

 

 

 

পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় ১৯৬৫ সালে হাওড়ার সালকিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন।

পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায়ের পৈতিক নিবাস বাংলাদেশের নারায়ণগজ্ঞে । তাঁর ছেলেবেলা কেটেছে এখানে । তিনি পড়াশোনাও করেছেন নারায়ণগজ্ঞে । পরবর্তীতে তিনি কলকাতার বেহালার অধিবাসী হন । ছাত্রজীবনে পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় খ্যাতনামা গোলকিপার ছিলেন। একটি দুর্ঘটনার শিকার না হলে তিনি ফুটবলকেই কেরিয়ার হিসেবে বেছে নিতেন।

তিনি পামেলা গঙ্গোপাধ্যায়কে বিবাহ করেন। তাঁদের এক পুত্র আছে। নাম রমিত গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি চিত্রকলা ও মান্না দের সংগীতের অনুরাগী ছিলেন।২০১৫ সালের ২৫ অক্টোবর রাত ২টো ৪৫ মিনিটে কলকাতার বেল ভিউ ক্লিনিকে পীযূষ গঙ্গোপাধ্যায় মারা যান। ২০ অক্টোবর হাওড়ার সাঁতরাগাছিতে একটি গাড়ি দুর্ঘটনার শিকার হয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুর কারণ ‘মাল্টি-অর্গান ফেলিওর ও একটি কেস পলিট্রমায় ফ্যাট এমবলিজম’।

চার বসন্ত উৎসব গয়নার বাক্স আবর্ত ল্যাপটপআবার ব্যোমকেশ দশমী অটোগ্রাফ ব্যোমকেশ বক্সী

১৯৯১ প্রমথেশ বড়ুয়া পুরস্কার১৯৯৬ শ্যামল সেন স্মৃতি সম্মান২০০৫ বেঙ্গল ফিল্ম জার্নালিস্টস অ্যাসোশিয়েশন অ্যাওয়ার্ড২০০৮ সংবাদ প্রতিদিন কমপ্ল্যান টেলি সম্মান২০১১ স্টার জলসা পরিবার পুরস্কার২০১৪ পশ্চিমবঙ্গ সরকার (তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ) টেলি অ্যাকাডেমি পুরস্কার২০১৪ শৈলজানন্দ স্মারক চলচ্চিত্র সম্মান।

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট