জে‌নে নিন টি‌কিয়া কিভা‌বে বানা‌বেন


সোমবার,৩১/০৭/২০১৭
1119

সাব‌রিনা খান---

অাজ‌কের রান্না : টিকিয়া

———————————

সাব‌রিনা খান
ঢাকা, বাংলা‌দেশ

উপকরণ:

১. খাশির আঁশযুক্ত গোশ- ১ কেজি

২. ছোলার ডাল- ৩০০ গ্রাম

৩. এলাচ (সবুজ)- ৫টি

৪. দারুচিনি- ৪টি

৫. লবঙ্গ- ৫টি

৬. গোলমরিচ- ৬/৭টি

৭. শাহজিরা- ১ চিমটি

৭. জৈয়িত্রি- সামান্য (১টি পাতা)

৮. কাবাব চিনি- ২টি

৯. জিরা (আস্ত)- ১ চা চামচ

১০. ধনে গুড়া- ১চা চামচ

১১. পোস্ত- ১ চিমটি

১৩. আদা (আস্ত)- ১ ইঞ্চি

১৪. রসুন- ৬/৭ কোয়া

১৫. শুকনামরিচ- ৪/৫টি

১৬. লবন- স্বাদমত

১৭. হলুদ- ১ চা চামচ

১৮. তেল- ৫০ গ্রাম

১৯. পুদিনা কুচি- ১ কাপ

২০. পেঁয়াজ বেরেস্তা- ১কাপ

২১. কাচামরিচ কুচি- ৭/৮টি (স্বাদমত)

২২. ডিম-২টি

২৩. তেল- ভাজার জন্য

 

প্রস্তুত প্রণালী:

পুদিনা ও কাঁচামরিচ কুচি, পেঁয়াজ বেরেস্তা, ডিম ও ভাজার তেল বাদে বাকি সব উপকরণ প্রেশার কুকারে দিতে হবে এমন পরিমান পানি দিয়ে যাতে পুরটা মাখাতে গেলে খুব নরম বা বেশি শুকনা না হয়।৩/৪টি হুইসেল দিয়ে নামাতে হবে। পানি থেকে গেলে চুলায় দিয়ে শুকিয়ে নিতে হবে। এরপর সিলপাটায় মিহি করে বেটে নিতে হবে।ব্লেন্ডারে না বাটাই ভাল। বাটার পর পুরের সাথে পুদিনা পাতা ও কাঁচামরিচ কুচি, পেঁয়াজ বেরেস্তা (হাত দিয়ে ভাল করে গুড়া করে নিতে হবে) এবং প্রথমে ১টি ডিম দিয়ে (প্রয়োজনে আরও ১টি) ভালভাবে মাখাতে হবে। ইচ্ছামত টিকিয়ার আকার তৈরী করে ডিপ ফ্রিজে আধাঘন্টা রাখতে হবে।এরপর ভেজে খাও সুস্বাদু টিকিয়া। তৈরীকৃত টিকিয়া ফ্রিজে প্লাস্টিক বক্সে বা পলিথিন ব্যাগে সংরক্ষণ করা যায় অনেক দিন। পোলাও এর সাথে টিকিয়া দারুন চলে। আবার বাচ্চাদের টিফিন এবং বাড়িতে অতিথী এলে তাৎক্ষণিক ভেজে খাওয়াতে পার এই মজাদার টিকিয়া।

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট