গ্রামে বাঘের আতঙ্ক ভাঙড়ে, ধরা পড়ল বাঘরোল


রবিবার,০৭/০১/২০১৮
413

বাংলা এক্সপ্রেস প্রতিনিধি , ভাঙড় : বাঘের আতঙ্ক ভাঙড়ে । বাঘ ধরতে গিয়ে এলাকার বাসিন্দারা শেষমেশ ধরলেন বাঘরোল।ভাঙড়ের এক গ্রামে শনিবার রাতে ‘বাঘ পড়েছে, বাঘ পড়েছে’ বলে চিৎকার করতে থাকেন এলাকার বাসিন্দারা।লাঠি সোটা নিয়ে বেরিয়ে আসেন এলাকার বাসিন্দারা। বাঘরোল উদ্ধারকে ঘিরে এ দিন গ্রামে হুলুস্থুল পড়ে যায়। কাশীপুর থানার পুলিশ বিরল প্রজাতির এই প্রাণী কে বন দফতরের হাতে তুলে দেয় ।

শনিবার রাতে ভাঙড়ের কাশীপুর থানা এলাকার চন্ডিহাট গ্রাম থেকে বিরল প্রজাতির এই বাঘরোল টি ধরা পড়ে।বাঘের মতন দেখতে বাঘরোল কে দেখে এলাকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তাঁরা ভয়ে ‘বাঘ-বাঘ’ বলে চিৎকার জুড়ে দেন। সেই সময়ে সন্ত্রস্ত হয়ে লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে হাজির হয়। এলাকার কয়েক জন যুবকের কসরত করে প্রাণীটি ধরে ফেলে।
এর পরই ভুল ভাঙ্গে এলাকার বাসিন্দাদের ধরা পড়া প্রাণীটি বাঘ নয় বাঘরোল। প্রাণীটিকে দেখতে গ্রামের মানুষ ভিড় জমান।সকালে তাঁকে কাশীপুর থানায় নিয়ে আসা হয়। পুলিশ বিরল প্রজাতির এই প্রাণীটিকে খাঁচাবন্দি করে।

খবর দেওয়া হয় বন দফতরে। বন দফতরের আধিকারিকেরা এসে প্রাণীটিকে নিয়ে যায়। বন দফতরের মাতলা রেঞ্জ অফিসার জানান, বাঘরোলটিকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। এর দৈর্ঘ্য তিন ফুটের বেশি। বন দফতরের এক কর্মী জানান, “বাঘরোল একটি নিরীহ প্রাণী সুন্দরবনের ঝোপের আড়ালে থাকে। এখন শীতের সময় ক্ষুধার টানে এই প্রাণী টি সুন্দরবনের বন ছেড়ে লোকালয়ে চলে আসতে পারে। কিন্তু এই প্রাণী কারো ক্ষতি করে না। কিন্তু বাঘ মারলে যা শাস্তি বাঘরোল মারলে একই শাস্তি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট