জল কষ্টে গ্রাম ছাড়া মহিলারা


বুধবার,০৪/০৪/২০১৮
493

পিয়া গুপ্তা কালিয়াগঞ্জ:সকাল হতে না হতেই লম্বা লাইনে দাড়িয়ে পড়ছেন কালিয়াগঞ্জের মুস্তাফানগর গ্রামের সিমা,রানি,টুলুর মতো গ্রামের বহু মহিলারা।বাড়ির কাজ কর্ম ফেলে দূর গ্রামে পাড়ি দিয়ে চাতকের মতো এক দৃষ্টি কোণে তাকিয়ে রয়েছেন সামান্য জলের আশায় । কখন পাবেন জল কখন মেটবে তাদের তৃষ্ণা এখন এই আশায় তাদের দিন কাটছে সকাল সন্ধ্যা । জল না পেয়ে কখনো কখনো পুকুরের নোংরা জল কেই পান করতে হচ্ছে তাদের। অনেকে আবার জল কষ্টে গ্রাম ছেড়ে আত্মীয় পরিজনের বাড়িতেই আশ্রয় নিচ্ছেন ।

উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জের মুস্তাফানগর ,ধবাইল,সাহাপুর,কুনোর,মালগাঁও সহ বহু গ্রামের মহিলাদের চিত্র টা আজ ঠিক একই রকম। দীর্ঘ 15 থেকে 20 দিন ধরে এই গ্রাম গুলি আজ তীব্র জল সংকটে ভুগছে।

উল্লিখিত গরম পড়তে না পড়তেই এই গ্রাম গুলিতে দেখা দিয়েছে পানীয় জলের তীব্র সংকট। গ্রামের ভূগর্ভস্থ জলস্তর অনেকটা নীচে নেমে যাওয়ার কারণে মানুষের প্রয়োজনীয় জল না পেয়ে চরম সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ।গরমের মরশুম শুরু হতে ন হতেই তীব্র জল কষ্ট শুরু হয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলায় । জেলার বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে এখন পানীয় জলের জন্য তীব্র হাহাকার শুরু হয়েছে । বহু গ্রামের মাটির নিচের জল স্তর এতটাই নিচে নেমে পড়েছে যে গ্রাম গুলিতে এখন জল উঠছে না।এমনি একটি ভয়াবহ চিত্র ধরা পড়েছে কালিয়াগঞ্জের মুস্তাফানগর গ্রাম পঞ্চায়েত ও মালগাও এলাকার বহু গ্রামে । এখানকার গ্রাম বাসীরা তীব্র জল সংকটে বহুদিন ধরে হাহাকার করছে। যদিও কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা থেকে সাময়িক ভাবে এই সমস্যা দূর করার জন্য একটি দুটি করে জলের ট্যাঙ্কার পাঠালেও সেটা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই অপ্রতুল । তাই বেশ কিছুদিন ধরে গ্রাম বাসীদের দেখা যায় তাদের সংসারে যাবতীয় কাজ কর্ম ফেলে পৌরসভার ট্রাঙ্ক থেকে জল আনতে সকাল থেকে লম্বা লাইনে দাঁড়ালেও সকলের ভাগ্যে জোটে না সেই জল । কারণ হাজার হাজার গ্রাম বাসীর জন্য একটি মাত্র জলের ট্যাঙ্ক তাদের প্রয়োজন মেটাতে পারছে না।

গ্রাম বাসীরা জানান প্রতি বছরের মতো এবছর ও গরম পড়তে না পড়তে তাদের গ্রামে জলের সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। জল তাদের গ্রামের কোন কল থেক উঠছে না।ফলে বাধ্য হয়ে আশে পাশের পুকুর থেকেই রান্না বান্না সহ ঘরের একাধিক কাজ করতে হচ্ছে । কখনো কখনো জলের অভাবে সেই নোংরা পুকুরের জল ই পান করতে হচ্ছে ।ফলে তারা এখন ভীষণ অসুবিধার মধ্যে দিন গুজরান করছেন।

গ্রাম বাসীরা জানান স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে তাদের এই সমস্যার কথা বিডিও অফিসে জানানো হলেও কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা থেকে যে ট্যাঙ্ক পাঠানো হচ্ছে সেই ট্যাঙ্ক দিয়ে সমস্যা তো দূরের কথা প্রয়োজনীয় জল টুকুও ঠিকমতো পাচ্ছেন না।ফলে বাচ্চা দের নিয়ে অনেকেই গ্রাম ছেড়ে চলে যাচ্ছেন আত্মীয় দের বাড়িতে ।
এদিকে কালিয়াগঞ্জ মুস্তাফানগর গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান সুধেন দেবশর্মা বলেন তারা গ্রামের এই সমস্যা কালিয়াগঞ্জের বিডিও সাহেব কে। জানিয়েছেন ।এর পর কালিয়াগঞ্জ বিডিও অফিস থেকে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সাহায্য নিয়ে জলের ব্যাবস্থা করলেও একটি দুইটি ট্যাঙ্ক দিয়ে কোনো ভাবেই গ্রামের মানুষদের সমস্যা মিটছে না।তাই প্রশাসনের উচিত গ্রামের সমস্যা দূর করতে আরো বড়ো পদক্ষেপ নেওয়া যাতে হাজার হাজার গ্রাম বাসী জল কষ্ট থেকে মুক্তি পায় ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট