আজও ভারতের এই গ্রাম গুলিতে মহিলাদের কেনাবেচা চলে


মঙ্গলবার,০৩/০৭/২০১৮
287

বাংলা এক্সপ্রেস---

আজ ও  ভারতে এমন কিছু গ্রাম রয়েছে যেখানে খোলা বাজারে জিনিসপত্রের মতো মহিলাদের কেনাবেচা চলে। আর এই কেনাবেচা চলে প্রশাসনের নাকে ডগায়। বলা যেতে পারে সবাই সব জানে, কিন্তু কোনও পদক্ষেপ নেই। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে এসেছে। আর এই অভিযোগের কেন্দ্রবিন্দু বিজেপি শাসিত রাজ্য মধ্য প্রদেশ। জানা গিয়েছে, মধ্য প্রদেশের গোয়ালিয়র ডিভিশনের শিবপুরি জেলায় অর্থের বিনিময়ে মহিলাদেরকে কয়েক মাস বা বছরের জন্য ভাড়া নেওয়া হয়। এই ঘৃণ্য প্রথা ‘ধাদীচা’ নামে পরিচিত। আর প্রকাশ্য দিবালোকে খোলা বাজারে তাদের লাইনে দাঁড় করিয়ে এই কেনাবেচা চলে। এমনকি একেক সময় কোনও মহিলার স্বামী অর্থের লোভে স্ত্রীদের বিক্রি করে দেন।

আর এই বিক্রির প্রথা চুক্তি ভিত্তিকও হয়ে থাকে। এজন্য ১০ টাকার স্ট্যাম্প পেপারে রীতিমত চুক্তি হয়। চুক্তি শেষ হলে তা আবার পুনঃবার করা যায়।শুধুমাত্র মধ্যপ্রদেশেই নয়, এধরনের প্রথার প্রচলন রয়েছে আরেক বিজেপি শাসিত রাজ্য গুজরাটেও। এক ধনী ব্যবসায়ীর কাছে প্রতি মাসে ৮ হাজার টাকার বিনিময়ে এক ব্যক্তি তার স্ত্রীকে ভাড়া দিয়েছেন বলে অভিযোগ মিলেছে। আবার ২০১৭ সালে এমনই এক ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসে। ইন্দোরের এক ব্যক্তি বিয়ে বাড়িতে গিয়ে তার স্ত্রীকে বিক্রি করে দেন ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে। অসংখ্যবার ধর্ষণের পর তাকে আরও একবার বিক্রি করে দেওয়া হয় শিবপুরী জেলার এক লোকের হাতে। পাশাপাশি এমন বহু উপজাতি গোষ্ঠী আছে যারা অর্থের বিনিময়ে পরিবারের মহিলাদের ধনী ব্যক্তিদের কাছে বিক্রি করে দেন। কিন্তু এই প্রথার শেষ কোথায় বা আদেও সমাধান সুত্র মিলবে কি তা সকলেরই অজানা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট