মেয়েকে ধর্ষণ করলো বাবা !


শুক্রবার,০৩/০৮/২০১৮
270

গোপাল ঠাকুর---

জীবনতলা: কেউ বাড়ীতে না থাকায় ফাঁকা বাড়িতে সুযোগ নিয়ে এক বছর বার পনেরো নাবালিকা মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠলো খোদ তার বাবার বিরুদ্ধেই। ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণা জীবনতলা থানা এলাকায়। এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত লায়েব মোল্লার বিরুদ্ধে জীবনতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নির্যাতিতা মেয়ে ও তার মা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে জীবনতলা থানার পুলিশ। অন্যদিকে অভিযুক্ত লায়েব মোল্লাকে গ্রেফতার করেছে জীবনতলা থানার পুলিশ। নির্যাতিতা নাবালিকাকে মেডিকেল পরীক্ষাও করিয়েছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে ঐ নাবালিকার তার ছোট বোন থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত, তাকে নিয়ে তার মা কলকাতার মানিকতলায় রক্ত বদলের জন্য গিয়েছিলেন। সেই সুযোগে ফাঁকা বাড়িতে ঐ নাবালিকার বাবা লায়েব মোল্লা মেয়েকে জোর করে মুখে কাপড় চাপা দিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর বিষয়টি কাউকে না জানানোর জন্য মাথায় হাত দিয়ে শপথ করিয়েও নেয় এবং বিনিময়ে ১০০ টাকা দেয় মেয়েকে খাবার খাওয়ার জন্য। কিন্তু ঘটনার পর ঐ নাবালিকার রক্তক্ষরণ হতে থাকে ও সে যন্ত্রণায় ছটপট করতে থাকে। অবশেষে খাবার কেনার নাম করে বাড়ি থেকে পালিয়ে কিছুটা দূরে থাকা দিদির বাড়িতে গিয়ে পুরো ঘটনার কথা সে তার দিদির কাছে জানায়। বোনের মুখে বাবার এই পৈশাচিক কাজের কথা শুনে বিষয়টি মাকে ফোনে জানান নির্যাতিতার দিদি। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে এ বিষয়ে স্বামীর বিরুদ্ধেই জীবনতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তিনি।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট