পাচারকারীর খপ্পর থেকে তিন স্কুল ছাত্র-ছাত্রীকে উদ্ধার করলো ঘুঁটিয়ারী শরীফ ষ্টেশনের হকাররা


সোমবার,০৬/০৮/২০১৮
248

গোপাল ঠাকুর---

ক্যানিং: অন্যান্য দিনের মতো সোমবার সকালে স্কুলে যাওয়ার সময় খাবার খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে  হাওড়ার “বানত্রা এম এস পি সি” হাইস্কুলের ষষ্ঠ ও সপ্তমশ্রেণীর দুই ছাত্র মহম্মদ আসিফ আলি ও মহম্মদ কাইফ আলি এবং হাওড়া যোগেশ চন্দ্র গার্লস্ হাইস্কুলের সপ্তম শ্রেনীর ছাত্রী সানিয়া পারভীন কে জনাতিনেক যুবক জোর করে একটি ট্রাকে তুলে নিয়ে যায় পাচার করার জন্য। সেখান থেকে শিয়ালদহ ষ্টেশনে এসে ঐ তিন ছাত্রছাত্রীকে পাচারকারী তিন যুবক বলে কাউকে কিছু বললে জানে মেরে ফেলার হুমকী দেয়।

শিয়ালদহ থেকে ট্রেনে করে ঐ তিন ছাত্র ছাত্রীকে নিয়ে ঘুঁটিয়ারী শরীফ ষ্টেশনে নামে পাচারকারীরা। পাচারকারীরা ঐ তিন ছাত্র ছাত্রীকে ষ্টেশনে বসিয়ে রেখে খেতে গেলে ছাত্রছাত্রীরা কান্নাকাটি শুরু করে। স্কুলের পোশাক পরা ছাত্র ছাত্রীদের কাঁদতে দেখে তাদের কে জিঞ্জাসাবাদ শুরু করেন ঘুঁটিয়ারী শরীফ ষ্টেশনের রেলওয়ে হকার্স ইউনিয়নের সফিউদ্দিন সরদার,আব্দুল ফরেজ সরদার,সুভাষ বোস,সইফুদ্দিন সরদার,রমজান মোল্ল্যা, বিমল সরদাররা।

ষ্টেশন চত্বের লোকের সমাগম দেখে বেগতিক বুঝে পাচারকারীরা গা ঢাকা দেয়। এরপর রেলওয়ে হকার্স ইউনিয়নের সফিউদ্দিন সরদার ঐ ছাত্র ছাত্রীদের কাছে সমস্ত ঘটনার কথা শুনে স্কুলে এবং ওদের পরিবারের লোকজনের সাথে যোগাযোগ করেন।ঐ ছাত্রছাত্রীর পরিবারের লোকজন ঘুঁটিয়ারী শরীফে আসলে ঘুঁটিয়ারী শরীফ ষ্টেশনের রেলওয়ে হকার্স ইউনিয়নের সদস্যরা ঐ ছাত্রছাত্রীদের কে তাদের বাবা-মায়ের হাতে তুলেন দেন।

হাওড়া জেলার ৮৫,গঙ্গারাম বালরাগী লেনের বাসিন্দা মহম্মদ আসিফ এর বাবা আশরাফ আলি বলেন “ছেলেকে যে এই ভাবে ফিরে পাবো ভাবতে পারিনি,অন্য দিকে মহম্মদ কাইফের বাবা কওসের আলি বলেন ঘুঁটিয়ারী শরীফের রেলওয়ে হকাররা পাচারকারীর হাত থেকে যেভাবে আমাদের ছেলে মেয়েদের কে উদ্ধার করে আমাদের হাতে তুলে দিলেন সত্যি ওনাদের কাছে চিরকৃতঞ্জ। ” হকার্স ইউনিয়নের সফিউদ্দিন সরদার বলেন “ঐ তিন ছাত্র ছাত্রীকে তাদের পরিবারের হাতে তুলে দিতে পেরে আমরা খুশি। ”

এবারবাংলা এক্সপ্রেসআপনার মোবাইলে, ডাউনলোড করুন বাংলা এক্সপ্রেস ফ্রি মোবাইল অ্যাপ 

 

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট