বেআইনি টেলিফোন এক্সচেঞ্জ চালানোর অভিযোগে CID-র জালে ধরা পড়ল চার যুবক


বুধবার,০৩/১০/২০১৮
413

সুমন করাতি---

চন্দননগর: বেআইনি টেলিফোন এক্সচেঞ্জ চালানোর অভিযোগে CID-র জালে ধরা পড়ল চার যুবক। গতরাতে চন্দননগরের চাঁদনি বেনেপুকুর থেকে এই চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতরা হল, বাংলাদেশের নাগরিক মহম্মদ সরওয়ার জাহান, চুঁচুড়ার শুভেন্দু ঘোষ, দাদপুরের আশিস পাল ও চন্দননগরের পিন্টু দাস।

CID সূত্রে খবর, জার্মানির অস্ট্রিক সফটওয়্যারের মাধ্যমে ISD কলকে লোকাল কলে কনভার্ট করা হত। ISD কলকে ৫৬ পয়সার লোকাল কলে কনভার্ট করা হত। এক্ষেত্রে ISD কলের চার্জ বাবদ লাখ লাখ টাকা কর ফাঁকি দেওয়া হত। এছাড়া, ISD কলগুলিকে লোকাল কলে কনভার্ট করায় কোন জায়গা কে থেকে কাকে ফোন করছিল, সেটাও বোঝা যাচ্ছিল না। জঙ্গি বা অন্য কোনও দুষ্কৃতী এর সুযোগ নিয়ে কল করলে সেক্ষেত্রে পুলিশ বা CID তার আঁচ পাচ্ছিল না।
চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের তরফে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা দপ্তর এবিষয়ে ওয়াকিবহাল ছিল। ধৃত মহম্মদ সরওয়ার একজন বাংলাদেশি ইঞ্জিনিয়ার। এর আগেও কলকাতায় এই চক্র মাথাচাড়া দিয়েছিল। পরে জায়গা পরিবর্তন করে চন্দননগরে জাল বিছিয়েছিল তারা।

যে আবাসনে ওই চক্র চলছিল, তার মালিক গত আটমাস আগে পিন্টু দাসকে কল সেন্টার চালানোর জন্য তিন বছরের জন্য ঘর ভাড়া দেয়। তবে মালিক নীলাঞ্জন মিত্র নাকি এবিষয়ে কিছুই জানতেন না বলে দাবি করেছেন। ধৃত শুভেন্দু ঘোষের বাড়ি থেকে একাধিক মেশিন উদ্ধার করেছে পুলিশ।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট