সৈদাবাদ দয়াময়ী কালীবাড়ি মন্দিরে পুজোপাঠ যাগযজ্ঞ


বুধবার,০৭/১১/২০১৮
266

বাংলা এক্সপ্রেস---

মুর্শিদাবাদঃ বহরমপুরে প্রাচীন কালী মন্দির গুলির মধ্যে অন্যতম খাগড়া সৈদাবাদ দয়াময়ী কালীবাড়ি। কালী পুজোর দিন সকাল থেকেই মায়ের মন্দিরে পুজোপাঠ যাগযজ্ঞ শুরু হয়। প্রচুর দর্শনার্থী এদিন সকাল থেকে পুজো দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করে থাকেন।

       উল্লেখ্য কথিত আছে প্রায় ২৭০বছর আগে সাধক কৃষ্ণেন্দু হোতা মায়ের সাধনায় সিদ্ধিলাভ করে তাঁরই নির্দেশে মন্দিরটি প্রতিষ্ঠা করেন। মায়ের এখানে শীলা মূর্তি রয়েছে। এই মন্দিরের চারিপাশে ১৬টি শিব মন্দিরও রয়েছে। বলা হয় মা কে রক্ষা করার জন্যই এই মন্দির গুলি তৈরী করা হয়েছে। আবার কেউ কেউ বলেন এই ১৬টি শিব চারিপাশে অবস্থান করে আছে তার কারন এই ১৬টি শিব মা কে রক্ষা করছেন। মায়ের মন্দিরের বাইরে বিদ্যুৎ সংযোগ থাকেলেও মূল মন্দিরের ভিতরে কোন বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। জনশ্রুতি আছে একবার এই মন্দিরের ভেতরে বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য পরিকল্পনা করা হয়।

আর ঐদিন রাতেই মা মন্দিরের সেবাইতকে স্বপ্নাদেশে বিদ্যুৎ সংযোগ না করার জন্য বলেন। সেই থেকে মন্দিরের ভিতরে বিদ্যুৎ সংযোগ করা হয়নি। সারা বছর ধরে মায়ের মন্দিরের ভিতরে মোমবাতির আলো জ্বালানো হয়। প্রতিষ্ঠা মাস বৈশাখ মাসে এবং কালী পুজোর সময়েও মোমবাতির আলো দিয়েই মায়ের মন্দির সাজানো হয়। মন্দিরে মায়ের নিত্য পুজো হয়। কালী পুজোর সময়ে বৈশাখ মাসে, পৌষ মাসে মায়ের মন্দিরে প্রচুর ভক্তের সমাগম হয়। শুধু মুর্শিদাবাদ জেলায় নয় জেলার বাইরে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু মানুষ মাকে দর্শন করার জন্য মায়ের মন্দিরে আসেন। মায়ের নিত্য ভোগে মাছ দেওয়া হয়।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট