জবর দখল উচ্ছেদের জন্য স্থানীয় মানুষের থানা ও পৌরসভা ঘেরাও


বুধবার,১২/১২/২০১৮
350

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: দীর্ঘ ১০ বছর ধরে আন্দোলন করে জবর দখল উচ্ছেদ করতে না পেরে মেদিনীপুর কোতোয়ালি থানা এবং মেদিনীপুর পৌরসভা ঘেরাও করল মেদিনীপুরের ২২ নম্বর ওয়ার্ডের অরবিন্দ নগর বএটি উচ্ছেদের জন্য আমরা পথ অবরোধ করেছি মেদিনীপুর কোর্ট এমনকি হাইকোর্ট থেকে উচ্ছেদের অর্ডার থাকলেও কি কারনে তাদের উচ্ছেদ করা যাচ্ছে না। জানিনা হাইকোর্টের নির্দেশ কেউ পাত্তা দেয় নি, এর পেছনে পরোক্ষভাবে মেদিনীপুর পুরসভার চেয়ারম্যান মেদিনীপুর পুরসভার চেয়ারম্যান প্রণব বসু এবং স্থানীয় কাউন্সিলার রাধারানী বেরা ও স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা গড়বেতার বিধায়ক আশীস চক্রবর্তীর মদত রয়েছে বলে আমরা লক্ষ্য করেছি ওই খেলার মাঠ আগে শিশুতীর্থ বলে একটি পার্ট ছিল।

সেই পার্কটার সাথে মাঠে বরাবর দুর্গাপূজা হত আর মুসলিমরা নামাজ পড়তো কিন্তু সেই মাঠ দখল করে নেতাজী নগর নাম দিয়ে এখন প্রায় তিনশোর বেশি বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষ বাস করছে। আর ওরা থাকার জন্য বেড়েছে চুরি ছিনতাই অসামাজিক কাজ প্রতিনিয়ত গন্ডগোল অশান্তি এবং সর্বোপরি পরিবেশ নোংরা করা। আমরা দেখলাম এক রাজনৈতিক দল ফরওয়ার্ড ব্লকের মাধ্যমে বসা নতুন নেতাজি নগর নাম নিয়ে এই অসামাজিক মানুষগুলোর উচ্ছেদ চাইছি।

পুলিশ প্রশাসন কেন কোন কাজ করছে না বা পুরসভা কেন কি কারণে এই উদ্যোগ নিচ্ছে না? হাইকোর্টের নির্দেশ থাকা সত্বেও তার জবাব চাইতে আজকের এই শিক্ষক অবস্থা যতক্ষণ না এর সঠিক উত্তর পাচ্ছি আমরা এখান থেকে সরছি না ওই ওরার্ডের বাসিন্দা মায়া ঘোষ বলেন, ৯০ সাল থেকে ধীরে ধীরে দখল করে নিচ্ছে এই মাঠ। আমরা অনেক আন্দোলন করে ও সেই দখল বন্ড করতে তো পারেনি বরং পুরো মাঠ টাই দখল করে নিয়েছে বিশেষ এক সম্প্রদায়ের মানুষ। মহিলাদের নিরপত্তা নেই আর। সময় সুযোগ পেলেই ছিনতাই করেছে। দু একবার শ্লীলতাহানির ঘটনাও ঘটেছে এখানে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট