সংবর্ধনা সভা,কম্বল এবং হুইলচেয়ার বিতরণ


রবিবার,১৩/০১/২০১৯
373

সাদ্দাম হোসেন মিদ্দে---

রাজারহাট- বিষ্ণপুর ২ পঞ্চায়েত ও মহাবীর সেবা সদনের যৌথ উদ্দোগে মহম্মদপুরে অনুষ্টিত হল সংবর্ধনা সভা এবং কম্বল ও হুইলচেয়ার বিতরণ অনুষ্ঠান।স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৭ তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে এদিনের অনুষ্টান।গ্রাম পঞ্চায়েত,পঞ্চায়েত সমিতি,জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য ও এলাকার বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদান রাখার জন্য সংবর্ধনা জানানো হয়।

দুঃস্থ ও প্রতিবন্দ্ধী ব্যাক্তিদের হাতে অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে কম্বল ও হুইলচেয়ার তুলে দেন বিশিষ্টরা।প্রায় একহাজার শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল বিতরণ এবং ত্রিশজন প্রতিবন্ধী ব্যাক্তির হাতে হুইল চেয়ার প্রদান করা হয়।পাশাপাশি সমগ্র অঞ্চল বাসীদের জন্য খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন ছিল।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন,রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক তথা বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্ত ও ১ নং বরো চেয়ারম্যান শাহনওয়াজ আলি মন্ডল(ডাম্পি),জেলা পরিষদ সদস্য রেহেনা বিবি।এছাড়া রাজারহাট-বিষ্ণপুরের প্রধান সাজেদা বিবি ও উপপ্রধান হাজি হান্নান গাজি প্রমুখ।মেয়র সব্যসাচী দত্ত বলেন,আমরা রাজনীতির লোক,সবসময় হয়তো রাজনীতির কচকচানির কথা বলি।কিন্তু মানুষ হিসাবে আমাদের সমাজের প্রতি দায়বদ্ধতা রয়েছে।যারা পিছিয়ে পড়া ব্যাক্তি তাদের জন্য সরকারি ভাবে সবটা করে ওঠা সম্ভব হয় না।তাই বিত্তবান ব্যাক্তি ও স্বেচ্ছাসেবি সংস্হা গুলির এগিয়ে আসা দরকার।সরকারি বেসরকারি যৌথ উদ্দোগে অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাদের জন্য কিছু করা সম্ভব।

বরো চেয়ারম্যান শাহনওয়াজ ওরফে ডাম্পি মন্ডল বলেন,এই ধরণের অনুষ্ঠান সম্প্রীতির মেলবন্ধন ঘটায়।রবীন্দ্র-নজরুলের বাংলায় যাতে কোন অপশক্তি বিভেদ সৃষ্টি করতে না পারে তার জন্য তিনি সাধারণ মানুষকে সজাগ থাকার আহবান জানান।এদিনের অনুষ্ঠিনের উদ্দোক্তা হাজি হান্নান গাজি বলেন,অসহায় মানুষদের জন্য সামান্য কিছু করতে পেরে আমরা আনন্দিত।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট