বহরমপুরে বিপুল পরিমান আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার দুই


বুধবার,৩০/০১/২০১৯
389

বাংলা এক্সপ্রেস---

মুর্শিদাবাদঃ মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে বিপুল পরিমান আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার দুই। বুধবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ বহরমপুর থানার চুনাখালি নিমতলা এলাকা থেকে দুই আগ্নেয়াস্ত্র পাচারকারীকে গ্রেপ্তার করে। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয় ১০টি অত্যাধুনিক পিস্তল এবং ৭৬রাউন্ড তাজা কার্তুজ। বুধবার বেলা ১১টা নাগাদ মুর্শিদাবাদ পুলিস সুপার শ্রী মুকেশ কুমার তার নিজের অফিসে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান যে, বুধবার সকাল সাড়ে ৮টা নাগাদ বহরমপুর থানার পুলিস এবং জেলার SOG টিম যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে দুই জনকে গ্রেপ্তার করে বহরমপুর থানার চুনাখালি এলাকা থেকে।

তাদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ১০টি অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র, ৭৬রাউন্ড তাজা কার্তুজ, ১০টি ম্যাগাজিন এবং ১টি মোবাইল।  আগ্নেয়াত্র পাচারে ধৃতরা হল মহম্মদ জুমরাতি আলম(৩১) বাড়ি বিহারের মুঙ্গের জেলার দড়িয়াপুর এলাকায় এবং অপরজন হল তুফেল সেখ(২৫) বাড়ি মালদা জেলার কালিয়াচক থানার আলিপুর এলাকায়। ধৃতরা মুর্শিদাবাদের দৌলতাবাদ থানা এলাকার ১৪মাইলের একজন ব্যাক্তিকে অস্ত্রগুলি পাচার করার জন্য নিয়ে যাচ্ছিল। মহম্মদ জুমরাতি আলম মুঙ্গের থেকে জামালপুর এবং জামালপুর থেকে ট্রেনে ফরাক্কায় এসেছে।

অপর ধৃত কালিয়াচক থেকে এসে ফরাক্কাতে এসে দুজনে আগ্নেয়াস্ত্রগুলি একটি ব্যাগে করে সেখান থেকে বাস ধরে চুনাখালিতে আসে। এক একটি পিস্তলের দাম ২০থেকে ২২হাজার টাকা এবং এক একটি কার্তুজের দাম ৩৫০টাকা বলে পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে। বুধবার ধৃতদের আদালতে তোলা হলে পুলিস তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০দিনের পুলিসি হেফাজতের আবেদন জানাবে। উল্লেখ্য গত ২০১৮সালে জেলায় ৩৮৮টি আগ্নেয়াস্ত্র, ৮৪৫টি গুলি এবং ৪৩২জনকে পুলিস গ্রেপ্তার করেছে। ২০১৯সালের ৩০শে জানুয়ারী পর্যন্ত মোট ১১২টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২৭৪টি গুলি এবং ৫১জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট