মেদিনীপুরপুর শহরে বামপ্রার্থী বিপ্লব ভট্টের সমর্থনে সাত কিমি পদযাত্রা


মঙ্গলবার,২৬/০৩/২০১৯
102

বাংলা এক্সপ্রেস---

পশ্চিম মেদিনীপুর: মেদিনীপুর পুর শহরে বামপ্রার্থী বিপ্লব ভট্টের সমর্থনে সাত কিমি পথ ধরে পদযাত্রা হলো শনিবার। সামিল হলেন কাজ হারানো কারখানার শ্রমিক সহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষ। মেদিনীপুর শহর লাগোয়া বিডলা কটন মিল ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাস থেকেই বন্ধ হয়ে রয়েছে এখনো।

২০১৪ সালে তৃনমূলের নায়িকা প্রার্থী সন্ধ্যারায় শ্রমিক মোহল্লায় গিয়ে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কটন মিলটি চালু করার ব্যাবস্থা করবেন। ২০১৬ সালে বিধান সভা ভোটে একুই প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। না, কাজ হারানো স্থায়ী সাড়ে আটশো আর অস্থায়ী ঠিকা শ্রমিক মিলে সাড়ে বারশো শ্রমিক পরিবারের প্রায় অর্ধ লক্ষাধিক মানুষ আজ অর্থাভাবে, রুটি রুজিতে দিশেহারা।

দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে শ্রম দিয়ে তাদের পি এফ,গ্র্যাচুয়েটি জমাকৃত অর্থ আজও পায়নি। অর্ধাহার, আর বিনা চিকিৎসায় কাজ হারানো এমন তিন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শ্রমিক মেলার নামে দেদার আই ওয়াস করার প্রচার করা শ্রমিক ফান্ডের টাকায়,কিন্তু শ্রমিকদের কাজের ব্যাবস্থায় কারখানাটি চালুর কোনো উদ্যোগ নেওয়া বা মালিকের বিরুদ্ধে কোনো ব্যাবস্থা গ্রহনে নীরব থাকার পিছনে গোপন আঁতাত সহ লেনদেন হওয়ার অভিযোগ তুলেছেন এমন কাজ হারানো শ্রমিকরা।

নাগরিক পরিষেবা সহ কর্মসংস্থান সব কিছুকেই উপেক্ষা করে শহর শহরতলিতে কোটী কোটী টাকা খরচ করা হয়েছে মূর্তি, রকমারি আলো গেট এমন গ্রীন সিটি প্রকল্পর নামে। মানুষ বর্ষায় নর্দমার জলে ভাসে, গ্রীষ্মে পানীয় জলে অভাবে হাহাকার করে।সাংসদ কোটার টাকায় কাটমানির অগ্রিম নিয়ে জেনারেটর মেসিন, ভেন্টিং নেপকিন মেসিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলিতে নিজেদের পছন্দের লোকদিয়ে বসানোর কয়েক মাস পরে অচল হয়ে পড়ে আছে।

ফলে এমন কাজের গুনমান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। জনগনের দাবীগুলি সহ তাদের কন্ঠস্বর প্রতিষ্ঠিত করতে সংসদে বামপন্থীদের শক্তি বৃদ্ধি, ধর্মনিরপেক্ষ দূর্নীতিঃ মুক্ত গনতান্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করতে, কৃষক, ক্ষেতমজুর, নওজোয়ানদের সমস্যা গুলি সমাধানে প্রথম ইউপি সরকারে নজর কাড়া বামপন্থীদের লড়াই ও খাদ্য, সর্বশিক্ষা,একশ দিনের কাজ প্রভৃতি বিষয় গুলিতে নীতি আরোপ করা, সেই ধারায় সংসদে নীতি আরোপ করার দাবীতে বামপন্থীদের জয়ী করার আহ্বান জানিয়ে এই পদযাত্রা।

মিছিলে প্রার্থী সহ জেলা বামফ্রন্টের আহ্বায়ক তরুন রায়, বামনেতা সন্তোষ রানা,শক্তি ভট্টাচার্য, অশোকসেন, কীর্তিদে বক্সী প্রমুখ অংশ গ্রহন করেন।তরুন প্রজন্মের ছন্দ ও মুখোরিত শ্লোগানে প্রথম দিনেই এমন প্রচার জনমানসে ব্যাপক সাড়া ফেলেদেয়।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট