মাঠ প্রচারে বিরোধীদের পেছনে ফেলে অনেকটাই এগিয়ে বাম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য


বুধবার,১০/০৪/২০১৯
671

সাদ্দাম হোসেন মিদ্দে---

যাদবপুর:রাজ্যে বামেদের আগে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী ঘোষণা করলেও যাদবপুর লোকসভা কেন্দ্রে মাঠ প্রচারে অনেকটাই এগিয়ে বাম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। এক্ষেত্রে সিপিআইএম প্রার্থী বিকাশ বাবু তৃণমূলের মিমি চক্রবর্তী ও বিজেপির অনুপম হাজরাকে পিছনে ফেলে দিয়েছেন।

বিজেপি অবশ্য সবার শেষে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে।তৃণমূল প্রার্থী টলি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে সেভাবে এখনও প্রকাশ্যে মাঠে নামতে দেখা যায়নি। শুধুমাত্র কয়েকটি কর্মী সভার মধ্যে নিজেকে আবদ্ধ করে রেখেছেন। মাঠে নেমে সরাসরি জনসংযোগ রক্ষা করতে ব্যাস্ত মহানগর কলকাতার প্রাক্তন মেয়র সিপিআইএম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য। কিলোমিটারের পর কিলোমিটার পথ হাঁটছেন এই বুড়া বয়সেও।অথচ মিমি এখনও মাঠিতেই পা রাখেননি।বিকাশ বাবু যেখানে অটো-টোটো কিংম্বা পায়ে হেঁটে পৌঁছে যাঁচ্ছেন পাড়ার মাচায় অথবা চায়ের দোকানে,সবজি বাজারে।সেখানে টলি কুইন মিমি শীততাপ নিয়ন্ত্রিত গাড়ী করে আঁটোসাটো নিরাপত্তা বলয় নিয়ে সোজা মঞ্চে উঠে যাচ্ছেন।আর গান গেয়ে নেমে আবার উঠেছেন গাড়ীতেই।

তৃণমূল থেকে বহিষ্কৃত বোলপুরের প্রাক্তন সাংসদ যাদবপুরের বিজেপি প্রার্থী অধ্যাপক অনুপম হাজরাকেও সেভাবে মাঠে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। যাদবপুর লোকসভার অন্তর্গত ভাঙড় বিধানসভা হল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিধানসভা কেন্দ্র। এই বিধানসভার ফলাফলের উপর নির্ভর করে গোটা লোকসভার জয় পরাজয়। অথচ সেই ভাঙড়ে বিজেপি প্রার্থী এখনো প্রবেশই করতে পারেননি। তৃণমূল প্রার্থী মিমি চক্রবর্তী কেবলমাত্র তিন দিন কর্মীসভা করতে পেরেছেন ভাঙড়ে। অথচ বাম প্রার্থী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য অন্তত দশদিন যাবৎ ভাঙড়ের বিভিন্ন গ্রাম,পাড়া চষে বেড়াচ্ছেন।

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

জানা অজানা

সাহিত্য / কবিতা

সম্পাদকীয়


ফেসবুক আপডেট