“বাংলার মেয়েরা বার ডান্সার হতে পারে হিন্দি শিখতে পারে না?” তথাগত রায়ের টুইটের প্রতিবাদে অবস্থান বিক্ষোভে তৃণমূলের বঙ্গজননী ব্রিগেড


বৃহস্পতিবার,০৬/০৬/২০১৯
326

বাংলার মহিলাদের সম্পর্কে মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ের একটি মন্তব্যেকে কেন্দ্র করে উত্তাল রাজ্য রাজনীতি। টুইটে তথাগত রায় লেখেন, বাংলার মেয়েরা বার ডান্সার হতে পারে, হিন্দি শিখতে পারে না? তাঁর এই মন্তব্য বাংলার নারী সমাজকে অপমান করা হয়েছে বলেই মনে করছে তৃণমূল কংগ্রেস। প্রাক্তন বিজেপি নেতা তথা মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ের এই অপমানজনক মন্তব্যের প্রতিবাদে পথে নামল তৃণমূল কংগ্রেসের বঙ্গ জননী ব্রিগেড। বৃহস্পতিবার কলকাতার হাজরা মোড়ে অবস্থান বিক্ষোভে বসেন বঙ্গজননী ব্রিগেডের কয়েকশো মহিলা।

বঙ্গ জননী ব্রিগেডের সভানেত্রী তথা বারাসাত লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার সহ এদিনের এই অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন এক ঝাঁক তৃণমূল নেত্রী। তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা, চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য প্রমুখ। কাকলি ঘোষ দস্তিদার বলেন, ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলনের সঙ্গে কোন রকম যোগ ছিল না বিজেপি কিংবা আর এস এস- র। কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের দৌলতে ভারতীয় সংস্কৃতি ভূলুণ্ঠিত হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এমনকি মহিলারাও ছাড় পাচ্ছেন না, মন্তব্য বারাসাতের সাংসদের।

বিজেপির জয় শ্রীরাম স্লোগানের মোকাবিলায় এবং বাংলার সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য রক্ষায় জয় হিন্দ বাহিনী ও বঙ্গ জননী ব্রিগেড গঠন করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের বঙ্গ জননী ব্রিগেড গঠিত হওয়ার পরপরই মেঘালয়ের রাজ্যপাল তথাগত রায়ের বিতর্কিত টুইটের প্রতিবাদে ময়দানে নেমে পড়লেন এই বাহিনীর সদস্যরা। এদিনের এই অবস্থান কর্মসূচি থেকে বঙ্গ জননী ব্রিগেডের সদস্যারা জানিয়ে দিলেন যেখানেই বাঙালির অপমান হবে সেখানেই রুখে দাঁড়াবেন তারা।

Loading...

চাক‌রির খবর

ভ্রমণ

হেঁসেল

    জানা অজানা

    সাহিত্য / কবিতা

    সম্পাদকীয়


    ফেসবুক আপডেট